বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত দিয়ে পাখিও ঢুকতে দেয়া হবে না : বিজেপি সভাপতি

এই লেখাটি 134 বার পঠিত

pic b_121880ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ বলেছেন, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এমন শক্তিশালীভাবে সিল করা হবে একটা পাখিও ঢুকতে পারবে না।

সোমবার আসামের ঢকুয়াখানা, নাওবচৈ, চতিয়া এবং ঢেকুয়াজুলিতে বিজেপি প্রার্থীদের সমর্থনে এক জনসভায় একথা বলেন অমিত শাহ।

ঢেকুয়াজুলিতে জনসভায় অনুপ্রবেশ ইস্যুতে অমিত শাহ বলেন, ‘গত ১৫ বছর ক্ষমতায় থেকেও অনুপ্রবেশ রুখতে ব্যর্থ হয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ। বাংলাদেশের অনুপ্রবেশকারীরা শুধু আসামের নয়, গোটা দেশের সমস্যা।’

অমিত শাহ বলেন, ‘গত ১৫ বছরে কংগ্রেস সরকার যেসব সমস্যার সমাধান করতে পারেনি, তা মাত্র ৫ বছরে করে দেখাবে বিজেপি সরকার। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এমন শক্তিশালীভাবে সিল করা হবে একটা পাখিও ঢুকতে পারবে না।’

তিনি বলেন, ‘রাজ্যে লাখ লাখ বেকার। তারা পড়াশোনা করেও কোনো কাজ পাচ্ছেন না। অবৈধ অনুপ্রবেশের জন্যই এ রকম হয়েছে। ভোটের লালসায় কংগ্রেস অনুপ্রবেশকারীদের সংস্থাপনের ব্যবস্থা করে কিন্তু স্থানীয়দের নিয়োগে কোনো গুরুত্ব দেয়া হয়না। এর ফলেই চাকরি পান না বেকাররা।’

অমিত শাহ বলেন, ‘আমি কংগ্রেস সভানেত্রীকে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি, বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশ বন্ধের কথা ঘোষণা করতে। কিন্তু উনি তা বলবেন না। কারণ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের ভোট ব্যাংক হিসেবে ব্যবহার করে কংগ্রেস।’

আসামে কংগ্রেস সরকার স্রেফ একটা কাজেই সফলতা দেখিয়েছে বলে মন্তব্য করে অমিত শাহ বলেন, ‘ভোটের স্বার্থে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের চারণভূমি হয়েছে আসাম।’ ‘ভোট ব্যাংক গড়ার তাগিদে অনুপ্রবেশে মদদ দিয়ে তরুণ গগৈ সরকার দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিপদাপন্ন করে তুলেছে বলেও মন্তব্য করেন বিজেপি প্রেসিডেন্ট অমিত শাহ।

Aviation News