নারায়ণগঞ্জের বিদেশি সেই দুই কুকুর আটক

এই লেখাটি 31 বার পঠিত

নারায়ণগঞ্জের বিদেশি সেই দুই কুকুর আটক
বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের জামতলার বাসা থেকে দুই কুকুরকে আটক করা হয়।
ফতুল্লায় পাওনা টাকা চাওয়ায় জোর করে কুকুরের খাচায় ঢুকিয়ে দিয়ে রিকশাচালক আব্দুর রাজ্জাককে নির্যাতনের ঘটনায় বিদেশি সেই দুই কুকুর আটক করেছে পুলিশ। তবে ঘটনার ছয়দিন পেরিয়ে গেলেও ঘটনার মূলহোতা রুপুকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার এসআই ফায়জুর আসামি রুপুর বাড়িতে গিয়ে বিদেশি কুকুর দুটি আটক করে রুপুর মা শিউলী বেগমের হেফাজতে রেখে আসেন।
এসআই ফায়জুর বলেন, ওই বাড়ির ছাদে বিরল প্রজাতির চিল ও বাজ পাখি দেখা গেছে। এসব পাখি পোষার কোনো অনুমতি নেয়া হয়নি। তাই বন্যপ্রাণি সংরক্ষণ আইনে রুপুর বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা হবে। রুপুর বাড়ি থেকে আটক করা কুকুর দুটি ইংল্যান্ডের ‘রড হুইলার’ জাতের। এছাড়া বাজ ও চিলগুলো প্রায় বিলুপ্ত প্রজাতির।
মামলার এজাহারসূত্রে জানা যায়, রাজ্জাক সপরিবারে জামতলা এলাকায় বসবাস করে রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে। ৬৭/৩ নিউ চাষাঢ়া জামতলা এলাকার আব্দুর রহিমের বাড়ির প্রহরী মহিউদ্দিন দুই মাস আগে রাজ্জাকের কাছ থেকে ৭ হাজার টাকা লোন নেয়। গত ৩ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টায় আব্দুর রহিমের বাড়িতে ডেকে এনে তার কাছে কোনো টাকা পাবে না বলে রাজ্জাককে জানায় মহিউদ্দিন। তখন প্রতিবাদ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি মেরে রাজ্জাককে জখম করে। পরে আবদুর রহিমের ছেলে মাহমুদুর রহমান রুপুসহ আরও ২-৩ জনের সহযোগিতায় রাজ্জাককে টেনেহিঁচড়ে বাড়ির ছাদে নিয়ে যায়। সেখানে হত্যার উদ্দেশ্যে দুটি পালিত কুকুরের খাঁচার ভেতরে রাজ্জাককে ঢুকিয়ে দেয়।
কুকুর দুটি রাজ্জাকের শরীরের বিভিন্ন স্থান কামড়ে ও আঁচড়ে ক্ষতবিক্ষত করে। আহতাবস্থায় পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ ঘটনার ছয়দিন পেরিয়ে গেলেও আসামিদের কেউ গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এলাকাবাসীর কেউ কেউ বলেছেন, রুপু এলাকার চিহ্নিত মাদক সেবী ও ব্যবসায়ী। বেশ কয়েক বছর আগে রুপু অস্ত্রসহ ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল। বর্বর এই ঘটনার পর বাড়ির মালিক আবদুর রহিম বাড়ির প্রহরী মহিউদ্দিনকে অন্যত্র সরে যেতে সহায়তা করেন।
ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ওসি শাহ মঞ্জুর কাদের বলেন, আজ না হয় কাল আসামিদের গ্রেফতার হতেই হবে। পুলিশ আসামিদের গ্রেফতারের জন্য কাজ করছে।

Aviation News