১৬ আগষ্ট সিভিল এভিয়েশনের চীফ ইঞ্জিনিয়ারকে দুদকে তলব

এই লেখাটি 79 বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার : টেন্ডার সিন্ডিকেট করে পছন্দের ঠিকাদারকে কার্যাদেশ প্রদানসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে শত শত কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিভিল এভিয়েশেনর প্রধান প্রকৌশলী সুধেন্দু গোস্বামীকে তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার দুদকের পরিচালক ফরিদুর রহমানের স্বাক্ষরে পাঠানো নোটিশে তাকে তলব করা হয়। নোটিশ সিভিল এভিয়েশনের প্রধান প্রকৌশলীকে আগামি ১৬ আগস্ট সকালে দুদকে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। নোটিশে বলা হয়, অভিযোগ অনুসন্ধানের স্বার্থে দুদক আইনের ১৯ ও ২০ ধারা ও দুদক বিধিমালার ২০ ধারাসহ ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬০ ধারা মতে সুধেন্দু গোস্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এর আগে সিভিল এভিয়েশনের প্রধান প্রকৌশলীর দুর্নীতি অনুসন্ধানে দুদক পরিচালক মো: ফরিদুর রহমান ও সহকারি পরিচালক মো: গুলশান আনোয়ার প্রধানকে সদস্য করে দুই সদস্যের অনুসন্ধান টিম গঠন করে কমিশন।

এদিকে কিছুদিন আগে কাজের ধরন আর পরিধি সম্পর্কে ধারণা নিতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) কার্যালয় পরিদর্শন করেছে  দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বেবিচকের প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হতেই দুদকের উপ-পরিচালক হেলালউদ্দিন শরীফের নেতৃত্বে তিন সদস্যের দুদক টিম বেবিচকের প্রধান কার্যালয় পরিদর্শন করে।

তারও আগে দুদক কল সেন্টারের হটলাইনে (১০৬) পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন অনিয়ম খতিয়ে দেখতে দুদকের আরেকটি টিম বেবিচকের সদর দফতর পরিদর্শন করে। সে সময় বিব্রতকর পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দিয়েছিলো দুদক।

তারই আলোকে নেয়া ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে রোববার অভিযানকারী দলকে জানানো হয়, সংস্থার কেনাকাটা শতভাগ ই-টেন্ডারিংয়ের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে। এছাড়া উড়োজাহাজ উড্ডয়ন সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে নিয়মিতভাবে যাত্রীদের অবহিত করা হচ্ছে। তবে ভিআইপি যাত্রীদের জন্য ডিজিটাল ডিসপ্লের মাধ্যমে ফ্লাইট আসা-যাওয়ার তথ্য প্রদর্শন করা হচ্ছে।

অভিযানকারী দল সরেজমিন পরিদর্শনে দেখতে পায়, প্রতিষ্ঠানটির ১৯৮৫ সাল থেকে আজ পর্যন্ত তিন হাজার ৫৬৭টি অডিট আপত্তির মধ্যে দুই হাজার ৩৬১ আপত্তি নিষ্পত্তি হয়েছে। এক হাজার ২১০টি আপত্তি এখনো অনিষ্পন্ন অবস্থায় আছে। এ বিষয়ে দুদক টিম অসন্তোষ প্রকাশ করে।

বেবিচকে দুদকের অভিযান পরিচালনা প্রসঙ্গে এনফোর্সমেন্ট অভিযানের সমন্বয়কারী দুদকের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী জানান,  দুদক সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর গভর্নেন্সের মানোন্নয়নে নিয়মিত অভিযান ও পরিদর্শন তৎপরতা চালাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো সুশাসনে সমৃদ্ধ হোক এটিই দুদকের প্রত্যাশা।

Aviation News