হঠাৎ বুক ব্যথা হলে যা করবেন

এই লেখাটি 43 বার পঠিত

বুকে ব্যথা যন্ত্রণা এবং কষ্টকর অনুভূতি। অনেক রোগের কারণেই বুকে ব্যথা হতে পারে।

পেট ফেঁপে গ্যাস তৈরি হলেও অনেক সময় বুকে চাপ দিয়ে ব্যথা অনুভূত হয়।
মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা, দুর্ভাবনা বা বিমর্ষতার কারণেও বুকের বাম দিকে ব্যথা হতে পারে। বুকে ব্যথা অনুভব করেন তবে আপনি কি করবেন? আপনাকে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। চিকিৎসক অনেক প্রশ্ন করে থাকেন, তার উত্তরের মধ্যে আপনার বুকের ব্যথার কারণ নির্ণয় করতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করবেন। সুতরাং চিকিৎসক কি কি প্রশ্ন করতে পারে, তা জেনে আগে থেকেই সে সব প্রশ্নের উত্তর ঠিক করে রাখলে আপনার রোগ শনাক্তকরণ সহজ হবে, আপনি অনেক ঝামেলা থেকে উত্তরণ পেতে পারেন।
বুক ব্যথার গুরুত্বপূর্ণ কারণ হলো হৃদরোগ। তাই হৃদরোগজনিত বুক ব্যথার উপসর্গগুলো জানা থাকা ভালো। হৃদরোগজনিত বুক ব্যথাকে এনজিনা বলা হয়। এনজিনা সাধারণভাবে ক্ষণস্থায়ী ব্যথা, অল্প সময়ের মধ্যে ব্যথা দ্রুত দূরীভূত হয়ে যায়।

পরিশ্রমে ব্যথা শুরু হয় আবার বিশ্রামে ব্যথা দূরীভূত হয় এবং ভরা পেটেই বেশি হতে দেখা যায়। ব্যথা হঠাৎ শুরু হয় এবং খুব তাড়াতাড়ি আরোগ্য হয়ে যায়। বুক ভার লাগা, কিছু চেপে আছে এমন অনুভূতি হয়ে থাকে, কখনো কখনো বুক জ্বালা করতে পারে, ব্যথার সঙ্গে শ্বাস বন্ধ হওয়ার উপক্রম হতে পারে, ব্যথার সঙ্গে সঙ্গে শরীর অত্যধিক ঘেমে যায় এবং শ্বাসকষ্ট হতে পারে, কারও কারও ব্যথার সঙ্গে বুক ধড়ফড় করতে পারে। ব্যথা তীব্র হলে রোগী অস্থির হয়ে ছটফট করতে পারে। চিন্তাযুক্ত মানসিক অবস্থায় ব্যথা পরিলক্ষিত হয়, ফুড়ফুড়ে মেজাজে ব্যথা সাধারণভাবে পরিলক্ষিত হয় না। খাওয়ার পর বিছানায় শুতে গেলে বুক ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট হতে দেখা যায়। কারও কারও মাঝরাতে ঘুমের মধ্যে ব্যথা হতে দেখা যায়। এনজিনার ব্যথা অনুভূত হলে দ্রুত হৃদরোগ বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হতে হবে।

Aviation News