বাড়তি শক্তি নিয়ে ফাইনালে মাঠে নামবে ক্রোয়েশিয়া

এই লেখাটি 20 বার পঠিত

প্রি-কোয়ার্টার থেকে সেমিফাইনাল। তিনটি ১২০ মিনিটের ম্যাচ।

ফ্রান্সের থেকে ৯০ মিনিট বেশি খেলতে হয়েছে রাকিতিচ, মডরিচদের। ফুটবল বিশ্বের আশঙ্কা। ফাইনালে ক্লান্তি গ্রাস করবে কিনা ক্রোয়েশিয়াকে, সেই‌ সম্ভবনা উড়িয়ে দিয়েছেন ইভান রাকিতিচ।
পল পোগবাদের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত শক্তি নিয়ে নামবে তার দল। হুঙ্কার ছাড়লেন বার্সিলোনা মিডফিল্ডার। রাকিতিচ বলেছেন, ‘‌কোনও চিন্তা করবেন না। অতিরিক্ত শক্তি নিয়ে আমরা ফাইনালে নামব। ’‌

এরপরই রাকিতিচের সংযোজন, ‘‌একটা ঐতিহাসিক ম্যাচ খেলতে চলেছি আমরা। শুধু ফুটবলাররা নন।

দেশবাসীর ক্ষেত্রেও তা প্রযোজ্য। আমাদের সঙ্গে দেশবাসীরাও রবিবার মাঠে থাকবেন। মাথা উঁচু করেই মাঠ ছাড়তে চাই। ’

১৯৯৮ বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে উঠেছিল ক্রোয়েশিয়া। কিন্তু আয়োজক ফ্রান্সের কাছে তারা হেরে যায়। যদিও অতীত মনে রাখতে চান না রাকিতিচ। তিনি জানালেন, ‘‌পিছনে ফিরে তাকাতে চাই না। অতীত ইতিহাস মনে রেখে লাভ নেই। ফ্রান্সের থুরামের গোল দীর্ঘদিন আমাদের স্মৃতিতে ছিল। ১৯৯৮ সালে ফ্রান্স জিতেছিল। এবার আমরা জিততে চাই। ’‌
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন। ইউরোপা লিগসহ একাধিক ট্রফি রয়েছে রাকিতিচের ঝুলিতে। শুধু বিশ্বকাপটাই নেই। তা ছোঁয়ার জন্য বাকি সব ট্রফি ছেড়ে দিতে পারেন তিনি। রাকিতিচের কথায়, ‘‌সব ট্রফির বদলে শুধু বিশ্বকাপটা চাই। দেশের সাফল্যের জন্য যেকোনও মূল্য দিতে রাজি আছি। ’‌

Aviation News