বিমানের রিয়াদ-ঢাকা-রিয়াদ রুটের বাতিল ফ্লাইট চালুর দাবি

এই লেখাটি 69 বার পঠিত

রিয়াদ ঢাকা রিয়াদ রুটে ১৪ জুলাই থেকে ১ আগস্ট এবং ২৭ আগস্ট থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইন্সের সকল ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এই রুটটির বাতিল করা ফ্লাইট পুনরায় চালু করার দাবি জানিয়েছেন প্রবাসীরা।

বুধবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের রিয়াদ অফিসে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রবাসীদের পক্ষে এ দাবি জানানো হয়।
বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শ্রম বাজার সৌদি আরবে বর্তমানে ২২ লাখের বেশি বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় কর্মরত আছেন। এর মধ্যে রাজধানী রিয়াদে বসবাস করেন প্রায় ১২ লাখ বাংলাদেশি। রিয়াদ-ঢাকা রুটে প্রতিদিন গড়ে আড়াই হাজার যাত্রী ভ্রমণ করেন এর মধ্যে বাংলাদেশ বিমানের যাত্রী ৮০০/৯০০, বছরে প্রায় আড়াই লাখ।

গত জুন মাসে রিয়াদ স্টেশন থেকে বিমান ১৭ কোটি টাকা লাভ করেছে উল্লেখ করে তারা বলেন, কি কারণে হঠাৎ করে রিয়াদ-ঢাকা রুটের এতগুলো ফ্লাইট বাতিল করা হল সেটা আমাদের বোধগম্য নয়। বহিঃবিশ্বে বিমানের লাভজনক স্টেশনগুলোর অন্যতম হচ্ছে রিয়াদ ঢাকা রুট। কিন্তু হঠাৎ করে এই রুটে দীর্ঘদিনের জন্য ফ্লাইট বন্ধ করে দেয়ায় বিপাকে পড়তে যাচ্ছেন লাখ লাখ প্রবাসী। বিশেষ করে কোরবানীর ঈদকে সামনে রেখে দেশে ফেরার অপেক্ষারত প্রবাসীরা বিমানের ফ্লাইট বাতিলের খবরে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ), বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, আওয়ামী পরিষদ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগের নেতৃবৃন্দ বাতিল করা ফ্লাইট পুনরায় চালুর দাবি জানিয়ে বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জিএম (পাবলিক রিলেশন) শাকিল মেরাজ টেলিফোনে জানান, আমরা রিয়াদের ফ্লাইট চালু রাখার জন্য কয়েকটি বিমান ভাড়া করেছিলাম। তবে সৌদি সিভিল এভিয়েশনের অনুমতি না পাওয়ায় ভাড়া করা বিমান দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না।

Aviation News