বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বড় ভাইকে মারধর

এই লেখাটি 34 বার পঠিত

বরিশালের মুলাদী উপজেলায় ছোট বোনকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ভাইকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার দুপুরে উপজেলার বেইলি ব্রিজ সংলগ্ন দক্ষিণ পশ্চিম মুলাদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত সাইদুর রহমানকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সাইদুর রহমান চরকালেখান ইউনিয়নের দক্ষিণ গাছুয়া গ্রামের আব্দুর রব ওরফে রতন ঘরামির ছেলে।

একই গ্রামের ফকর উদ্দীন ঢালীর ছেলে জুবায়েরের নেতৃত্বে তার ৫/৬ জন সহযোগী এ হামলা চালান বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চরকালেখান ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবু ছালেহ পল্লব সিকদার জানান, জুবায়েরের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন বখাটে দীর্ঘদিন ধরে মিয়ারহাট এলাকার আশেপাশে অবস্থান করে পূর্ব হোসনাবাদ ডিগ্রি কলেজ ও গাছুয়া আব্দুল কাদের মাধ্যমিক বিদ্যালয়গামী ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করে আসছিল। ৭/৮ দিন আগে জুবায়ের একই এলাকার সাইদুরের চাচাতো বোন ও পূর্ব হোসনাবাদ কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাবসহ কু-প্রস্তাব দেন। সাইদুর স্থানীয় লোকজন নিয়ে এর প্রতিবাদ করলে জুবায়ের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করবে না বলে মুচলেকা দেন।

তিনি আরও জানান, ঘটনার পরদিন জুবায়ের ও তার বড় ভাই শাওন বিষয়টি নিয়ে চরমভাবে ক্ষিপ্ত হন এবং সাইদুরকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন। শনিবার দুপুরে সাইদুর মুলাদী সিনেমা হলের সামনে থেকে মোটরসাইকেল যোগে বরিশালের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়ে দক্ষিণ পশ্চিম মুলাদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছালে জুবায়েরের নেতৃত্বে ৫/৬ জন সন্ত্রাসী পথরোধ করে তাকে বেধড়ক মারধর ও তার কাছে থাকা ১২ হাজার টাকা এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এ সময় সাইদুরের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় সাইদুরের বাবা আব্দুর রব ওরফে রতন ঘরামি বাদী হয়ে জুবায়েরসহ ছয়জনকে আসামি করে বিকেলে মুলাদী থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মুলাদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল আহসান জানান, স্কুল-কলেজগামী ছাত্রীদের উত্ত্যক্তকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। অভিযোগের ভিত্তিতে আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Aviation News