বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য ফি বাড়াচ্ছে ভুটান

এই লেখাটি 83 বার পঠিত
IMG_25112019_134535_(728_x_410_pixel)

বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য ফি বাড়াচ্ছে ভুটান।

পাহাড়ঘেরা দেশ ভুটান। পর্যটকদের কাছে পছন্দের দেশ ভুটান। ভুটানে অন-অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা পেয়ে আসছে বাংলাদেশ, ভারত এবং মালদ্বীপ।

তবে এবার এই তিন দেশের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা তুলেনেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে ভুটান। যার অর্থ- ভুটান ভ্রমণে এবার বাংলাদেশ, ভারত ও মালদ্বীপের পর্যটকদের ফি বাড়ছে।খবর ইকোনোমিক টাইমসের।

দেশটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বাংলাদেশ, ভারত ও মালদ্বীপের জন্য অন-অ্যারাইভাল ভিসা সুবিধা তুলে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই সুবিধা তুলে নিলে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশি পর্যটকদেরও ভুটানের ভিসার জন্য আগেই আবেদন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে লাগবে বাড়তি ফি।

জানা গেছে, ভুটান ভ্রমণের জন্য অন্যদেশের পর্যটকদের প্রতিদিন ২৫০ মার্কিন ডলার (২১ হাজার ২৫০ টাকা প্রায়) পরিশোধ করতে হয়।যার মধ্যে ৬৫ ডলার টেকসই উন্নয়ন ফি ও ৪০ ডলার ভিসা ফি। নতুন নিয়ম চালু হলে ভুটান যেতে অন্যদেশ গুলোর মতোই উপমহাদেশের এই তিন দেশের পর্যটকদেরও ভিসা ফিসহ আগেই আবেদন করতে হবে।

পাশাপাশি উন্নয়ন ফি-এর জন্য প্রতিদিন গুণতে হবে ৬৫ ডলার বা পাঁচ হাজার ৬০০ টাকার মতো। অর্থাৎ, কেউ একদিনের জন্য ভুটান গেলে তাকে ভিসা ফির তিনহাজার ৪০০ টাকা (৪০ ডলার) ও উন্নয়ন ফির পাঁচ হাজার ৬০০ টাকা সহ অন্তত ৯ হাজার টাকা অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে।
ভুটানের ট্যুরিজম কাউন্সিলের খসড়া এই পর্যটন নীতি ডিসেম্বরে চূড়ান্ত হবার সম্ভাবনা রয়েছে। সে হিসেবে ২০২১ সাল থেকে বাড়তি ফি দিয়ে ভুটান ভ্রমণ করতে হবে বাংলাদেশিদের।

ইকোনোমিক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৮ সালে মোট দুই লাখ ৭৪ হাজার পর্যটক ভুটান ভ্রমণ করেছেন। এর মধ্যে দুই লাখই এ উপমহাদেশের, একলাখ ৮০ হাজার ছিল ভারতের পর্যটক।

Aviation News