কলকাতার গুরুগ্রামে প্রকাশ্যে নামাজ পড়া বন্ধ

এই লেখাটি 63 বার পঠিত

কলকাতার গুরুগ্রামে প্রকাশ্যে নামাজ পড়া বন্ধ।
কলকাতার গুরুগ্রামে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের প্রকাশ্যে নামাজ পড়া নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধিতা করছেন স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন। ইতিপূর্বে কয়েকবার মুসলমানদের নামাজে বাধা দেয়া হয়েছিল।
সর্বশেষ কয়েক মাস আগে সেখানে একটি আপস-মীমাংসা হয়। সে অনুযায়ী নির্দিষ্ট কয়েকটি স্থানে মুসলমানদের নামাজ পড়ার অনুমতি দেয়া হয়।
কিন্তু শুক্রবার মুসলমানরা জুমাবার উপলক্ষে নামাজ পড়তে গেলে সেখানে বাধা দেয়া হয় বলে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে একটি বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতীয় প্রভাবশালী গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।
তাদের খবরে বলা হয়েছে, নামাজ পড়তে প্রথমে বাধা দেয়া হলে মুসলমানরা সেখান থেকে সরে গিয়ে আরেকটি স্থানে নামাজ পড়তে সমবেত হয়। কিন্তু সেখানেও বাধা দেয়া হয়। এভাবে তৃতীয় জায়গায় নামাজ পড়তে বাধা দিলে মুসলমান থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করে।
স্থানীয় নেহরু যুব সংগঠন ওয়েলফেয়ার সোসাইটির প্রধান ওয়াজিদ খান বলেন, মৌলসরি মেট্রোস্টেশনের কাছে আমরা জুমাবারে নামাজের জন্য জায়গা চেয়েছিলাম। কিন্তু স্থানীয়দের বাধায় তা সম্ভব হয়নি। এরপরে আমরা অন্য জায়গা চিহ্নিত করি সেই জায়গাটা হরিয়ানা রাজ্য সরকারের অধীনে ছিল। সেখানেও স্থানীয়রা নামাজে বাধা দিয়েছে।
এরপরে নাথপুর গ্রামে নমাজের জন্য জমি চিহ্নিত করা হলে সেখানেও বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছে বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে নেহরু যুব সংগঠন ওয়েলফেয়ার সোসাইটি।
এ বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে এএসআই নরেশ কুমার বলেন, আমরা একটা অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Aviation News