‘মেসি-রোনালদোদের ক্ষেত্রে কেন লাল কার্ড নয়’

এই লেখাটি 55 বার পঠিত

রাশিয়া বিশ্বকাপে ইরানের বিপক্ষে ড্র করে দ্বিতীয় রাউন্ডে জায়গা করে নিয়েছে পর্তুগাল। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র করে দুদল। দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে হলে ম্যাচটি জিততে হত এশিয়ার দেশ ইরানের।কিন্তু ড্র করে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয় তাদের। তবে বিদায় নিলেও ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি(ভিএআর) এর সমালোচনা করেন ইরানের কোচ কার্লোস কুইরোজ।

প্রথমার্ধের অন্তিম মুহূর্তে দারুণ এক গোল করে পর্তুগালকে এগিয়ে নেন রিকার্ডো কুয়ারেসমা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আবারও ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পায় পর্তুগাল। কিন্তু ভিএআর-এর মাধ্যমে পেনাল্টি পেয়েও সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। খেলার অতিরিক্ত সময়ে ভিএআর-এর মাধ্যমে পেনাল্টি পেয়ে ইরানকে সমতায় ফেরান কারিম আনসারিফার্ড।

বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলেও ফিফার প্রেসিডেন্টের উপর ক্ষিপ্ত ইরানের কোচ কার্লোস কুইরোজ। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ভিএআর-এর সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘রোনালদো যে ফাউল্টা করেছে তা অবশ্যই লাল কার্ড পাওয়ার যোগ্য। ফুটবলের আইনে আছে যে কনুই দিয়ে আঘাত করা হলে সেটা অবশ্যই লাল কার্ড দেওয়া হবে। তাহলে মেসি-রোনালদোর ক্ষেত্রে কেন লাল কার্ড নয়। সেটা কোনো ভাবেই হলুদ কার্ড হয় না অবশ্যই সেটা লাল কার্ড হয়।

আমি রেফারিং নিয়ে কোনো দোষ দিচ্ছি না। আমি মনে করি ভিএআর-এর ব্যবহার সঠিক ভাবে হচ্ছে না। একটা মানুষ যখন একা একটি খেলা পরিচালনা করতে থাকে আর সেইখানে যদি কোনো কিছু ভুল হয় সেটা আমরা মেনে নিতে পারি। কারণ একটা মানুষের পক্ষে সবকিছু দেখা সম্ভব নয়। কিন্ত ভিএআর বসানোর পরও আপনি যদি সেই ভুলটা এড়িয়ে যান। তাহলে এত এত টাকা খরচ করে উচ্চমানের প্রযুক্তি বসিয়ে কী লাভ হল।’

ম্যাচ নিয়ে ইরানের কোচ আরও বলেন, ‘বিশ্বকাপ থেকে আমরা সম্মানের সঙ্গে ফিরে যাচ্ছি। বিশ্বকাপে অন্যতম সেরা দলের সঙ্গে ম্যাচটা অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ছিল। নিঃসন্দেহে আমরাই ম্যাচের মধ্যে ভালো খেলছি। তবে আমার মতে আমাদের খেলোয়াড় যেভাবে বল নিয়ন্ত্রণ করে খেলেছে তাতে আমরাই জয় পাওয়ার যোগ্য ছিলাম।’

সূত্র: গোল

Aviation News