ভ্রমণ হবে আরও সহজে

এই লেখাটি 55 বার পঠিত

কোথাও ভ্রমণের পরিকল্পনা করছেন? যদি যথাযথ প্রস্তুতি না থাকে তবে আপনার ভ্রমণ হতে পারে কষ্টদায়ক। কিছু টিপস মানুন, এগুলো আপানার ভ্রমণ আরও সহজ করবে-

ভ্রমণের স্থান সম্পর্কে ধারণা নিন: আপনি কোথায় ভ্রমণ করতে যাচ্ছেন সেই স্থান সম্পর্কে আগে থেকে জেনে নিন। যেখানে যাচ্ছেন সেখানকার বিখ্যাত খাবার ও আকর্ষণীয় স্থান সম্পর্কেও জানুন। ভ্রমণ স্থানের ম্যাপ সঙ্গে রাখতে পারেন।

আসন সংরক্ষণ: বাস, রেল, লঞ্চ বা প্লেন যেভাবেই আপনার গন্তব্যে যাননা কেন আগে থেকেই নিজের আসন সংরক্ষণ করে রাখুন। যেই হোটেলে থাকবেন সেখানে রুমও আগেই বুক করুন।

কক্সবাজার
আবহাওয়া সম্পর্কে ধারণা: আপনি যেখানে যাবেন সেখানকার আবহাওয়া সম্পর্কে আগে থেকে জেনে নিন। সেই অনুযায়ী প্রয়োজনীয় জিনিস সঙ্গে নিন। যেমন আপনি যদি শীতপ্রধান জায়গায় যান তাহলে শীতের পোশাক নিয়ে নিন। আর গরমের স্থানে গেলে হালকা ও আরামদায়ক পোশাক নিন। প্রয়োজনীয় ওষুধ নিতে ভুলবেন-না।

মার্কেট/রেস্টুরেন্টের অবস্থান: আশেপাশে মার্কেট বা রেস্টুরেন্টের অবস্থান সম্পর্কে আগে থেকে ধারণা নিন। এতে করে ভ্রমণের সময় কেনাকাটা বা খাবারে জায়গা খুজতে আপনার অতিরিক্ত সময় ব্যয় হবে না। কেনাকাটার ক্ষেত্রে অবশ্যই দরদাম করে কিনবেন। যে রেস্টুরেন্টে খাবেন আগে থেকেই খাবারের দাম জেনে নিন।

আইন সম্পর্কে জানুন: যেখানে যাবেন, সেখানকার আইন অমান্য করবেন না। আচরণ সংযত রাখুন। কোথায় ছবি তুলতে পারবেন আর কোথায় পারবেন না তা জেনে নিন।

ব্যাগ: প্রয়োজনীয় সবকিছু ব্যাগে নিন। একটি লিস্ট করে নিলে আরও ভাল হয়, ভুল হওয়ার সম্ভাবনা কমে যাবে। আবার ফেরার সময়ও লিস্ট ধরে সব কিছুই গুছিয়ে আনা যাবে।

সময় নিয়ে বের হন: কিছু অতিরিক্ত সময় হাতে রেখেই বের হবেন। যাওয়ার আগে আপনার বুকিং দেয়া সকল কাগজপত্র চেক করে নিন।

সকালের নাস্তা: ভ্রমণে বের হবার আগে সকালের নাস্তা খুব গুরুত্বপুর্ণ। এটা আপনাকে সারাদিনের এনার্জি দেবে তাই স্বাস্থ্যকর নাস্তা করুন।

সতেজ থাকুন: ভ্রমণে গিয়ে হাঁটাচলা, কেনাকাটা বা সাঁতার কেটে নিজেকে সতেজ রাখার চেষ্টা করুন। যদি আপনার হোটেলে জিম থাকে তাহলে সেখানে গিয়ে শরীরচর্চা করুন। পরিষ্কার পোশাক পরুন।

হাইড্রেট থাকুন: বাইরে সূর্যের তাপে ঘোরা ও পানি কম পান করার ফলে পানিশুন্যতা হতে পারে। তাই সঙ্গে সবসময় পানি রাখুন। পর্যাপ্ত পানি পান করুন। সাথে ছাতা রাখতে পারেন, এটা আপনাকে রোদ বা বৃষ্টি দুটো থেকেই বাঁচাবে।

হাল্কা খাবার: সারাদিনের জন্য যখন ঘুরতে বের হবেন তখন কিছু হালকা খাবার সঙ্গে নিতে পারেন। বাদাম, কুকিজ রাখতে পারেন। আর অবশ্যই সাথে যেকোনো মৌসুমি ফল নেবেন।

পরিবেশ নোংরা করবেন না: ভ্রমণ স্থানের পরিবেশ নোংরা করবেন না। নিজের খাবারের উচ্ছিটাংশ/চিপসের প্যাকেট ডাস্টবিনে ফেলুন।

আইডি কার্ড, ব্যাংক কার্ড, পাসপোর্ট(দেশের বাইরে গেলে), ফোন, চার্জার, পাওয়ার ব্যাংক, ক্যামেরা মনে করে আলাদা ব্যাগে নিয়ে নিন।

Aviation News