পূজা দেখানোর কথা বলে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ

এই লেখাটি 29 বার পঠিত
1570381448_rap-6

পূজা দেখানোর কথা বলে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ।

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের কমলাপুর আশ্রমের পাশে ভ্যান গ্যারেজের ভিতরে এক শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুরে ঐ কিশোরীকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে ।

পুলিশ, স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার পাখুল্লা গ্রামের কমল বেপারীর ছেলে ভ্যান চালক আকাশ বেপারী (২০) ও তার সহযোগী ইব্রাহীম শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে পূজা দেখার কথা বলে ফুসলিয়ে রোববার গভীর রাতে রাজৈর উপজেলার কমলাপুর আশ্রমের পাশে একটি ভ্যান গ্যারেজের ভিতর নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় ওই কিশোরী চিৎকারে পূজা দেখতে আসা পথচারীও দোকানদাররা এগিয়ে আসলে ধর্ষনকারীরা কিশোরীকে রেখে পালিয়ে যায়। পরে থানা পুলিশ গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। ধর্ষনের শিকার ঐ কিশোরীর বাড়ী মাদারীপুর সদর উপজেলার বাহাদুরপুর গ্রামে।

ধর্ষনের শিকার শারীরিক প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা বলেন, আমাদের পাশ্ববর্তী গ্রামের আকাশ ও তার সহযোগী ইব্রাহীম আমার মেয়েকে যে ক্ষতি করেছে আমি তার বিচার চাই।

রাজৈর থানার এস.আই জোবার (পিপিএম) বলেন, এক কিশোরীকে দুই যুবক মিলে ধর্ষণ করেছে এমন খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসি।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মো. আবু জাফর হাওলাদার বলেন, ধর্ষণের শিকার এক কিশোরীকে আমাদের হাসপাতালে নিয়ে আসলে আমরা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করি এবং চিকিৎসা দিয়েছি। ধর্ষণের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর থানার ওসি মো. সওগাতুল আলম বলেন, একটি ধর্ষণের ঘটনার কথা শুনেছি। রাজৈর থানা পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে। মেয়েটির পরিবারের কেউ যদি আমাদের কাছে অভিযোগ দেয় তা হলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।

Aviation News