প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটিঃ প্রকৌশলীসহ ৩ জনের জামিন মঞ্জুর

এই লেখাটি 135 বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটিঃ প্রকৌশলীসহ ৩ জনের জামিন মঞ্জুর ।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে ত্রুটির ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার মামলায় বিমানের প্রকৌশলীসহ তিনজনের জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।
সোমবার আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম প্রণব কুমার হুই আসামিদের জামিনের এ আদেশ দেন। আদালতের বিমানবন্দর থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এসআই আলম যুগান্তরকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
জামিনপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, বিমানের ইঞ্জিনিয়ার অফিসার নাজমুল হক, জুনিয়র টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান ও জুনিয়র টেকনিশিয়ান শাহ আলম।
আদালত সূত্র জানায়, এর আগে চলতি বছরের ১৫ মে আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ২৮৭ ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। ওই দিনই আদালত মামলাটি গ্রহণ করে আসামিদের হাজিরের জন্য সমন জারি করেন। এর আগে চলতি বছরের ৪ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে ত্রুটির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ১১ আসামিকে অব্যাহতি দেন আদালত। তবে অব্যাহতি পাওয়া আসামিদের মধ্যে ওই তিনজনের দায়িত্বে অবহেলার কারণে দণ্ডবিধির ২৮৭ ধারায় প্রসিকিউশন দাখিলের অনুমতি দেয়া হয়।
সূত্র আরও জানায়, ২০১৬ সালের ২৭ নভেম্বর হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজে (বোয়িং-৭৭৭) যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেয়। এ কারণে তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করে বিমানটি।
প্রধানমন্ত্রীর বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় ওই বছরের ২০ ডিসেম্বর রাতে সংস্থার পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট) উইং কমান্ডার (অব.) এমএম আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন। দণ্ডবিধির ১০৯, ১১৮, ১২০ (খ), ২৮৭ ও বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়। তদন্ত শেষে দাখিল করা এফআরটিতে মোট ১১ আসামির কোনো সম্পৃক্ততা না পাওয়ায় তাদের সবাইকেই অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়। তবে দায়িত্বে অবহেলার কারণে ওই তিনজনের দণ্ডবিধির ২৮৭ ধারায় প্রসিকিউশন দাখিলের সুপারিশ করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) পরিদর্শক মাহবুবুল আলম মামলাটি তদন্ত করেন।

সুত্রঃ যুগান্তর

Aviation News