বন্ধুদের সাথে নিয়ে দুলাভাইয়ের বাড়িতে ডাকাতিচেষ্টা!

এই লেখাটি 86 বার পঠিত

সাতক্ষীরা সদরের শিকড়ি এলাকায় দুলাভাইয়ের বাড়িতে ডাকাতি করতে এসে এলাকাবাসীর হাতে শালাসহ ৫ জন আটক হয়েছে। বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ডাকাতিকালে ডাকচিৎকার দিলে স্থানীয় গ্রামবাসীরা চারদিক থেকে তাদের ঘিরে ফেলে ৫জনকে আটক করে। এ সময় চার ডাকাত পালিয়ে যায়।

আটকরা হলেন, সদরের শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের ইয়ামিন সরদারের ছেলে মো. শাহাদাৎ হোসেন, ইন্দ্রিরা গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে তরিকুল ইসলাম, ইন্দিরা গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে সাঈদুর রহমান, ইন্দিরা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে রহমত আলী, আবাদেরহাট গ্রামের কাব্বিক সাধুর ছেলে শ্রী চঞ্চল সাধু।

সাতক্ষীরা সদর থানার এএসআই শেখ মো. মিরাজ আহম্মেদ জানান, সদরের শিকড়ি সরদারপাড়া এলাকার রহমত উল্লাহ্’র ছেলে গোলজার রহমানের সঙ্গে ১৪ বছর আগে পার্শ্ববর্তী শিয়ালডাংগা এলাকার ইয়ামিন সরদারের মেয়ে পারভীন সুলতানার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে গোলজার রহমানের স্ত্রীর পরিবারের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো ছিলো না। গোলজার রহমান পেশায় একজন ভ্যানচালক। গতকাল মঙ্গলবার গোলজার রহমান একটি গরু বিক্রি করে এক লক্ষ টাকায়। বুধবার বিকেলে সে টাকা ডাকাতি করার জন্য শশুর, শালাসহ ভাড়াটিয়া ৯ জন গুন্ডা বাহিনী নিয়ে গোলজার রহমানের বাড়িতে আক্রমণ করে শশুর বাড়ির লোকজন।

তিনি আরও বলেন, এ সময় গোলজার রহমানের ডাক চিৎকারে এলাকার মানুষরা ছুটে এসে শালা শাহাদাৎ হোসেনসহ ৫ জনকে আটক করে। বাকি চারজন পালিয়ে যায়। তবে গরু বিক্রির এক লাখ টাকা উদ্ধার করা যায়নি। বর্তমানে স্থানীয় প্রায় ৫ শতাধিক মানুষ ঘিরে ফেলেছে চারিদিক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স পাঠাতে বলা হয়েছে। পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Aviation News