চালু হচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম বিমানবন্দর

এই লেখাটি 4920 বার পঠিত
2018_05_17_46118_1526532372._large

চালু হচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম বিমানবন্দর।

বেইজিংয়ের দক্ষিণে বানানো নুতন মেগা বিমানবন্দর চালু করতে প্রস্তুত চীন। আসছে ০১ অক্টোবর (মঙ্গলবার) দেশটির ৭০তম প্রজাতান্ত্রিক দিবস সামনে রেখে বিমানবন্দরটি নতুনভাবে উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। যদিও ইতোমধ্যেই বিমানবন্দরটি বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যস্ততম বিমানঘাঁটির তকমা লাগিয়ে নিয়েছে।

এই নতুন বেইজিং ড্যক্সিং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (পিকেএক্স) থেকে শুক্রবারের (২০ সেপ্টেম্বর) দিকে প্রথম বাণিজ্যিক ফ্লাইট উড়তে পারে বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম। বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম বিমান সংস্থা এয়ারবাসের ‘এ-৩৮০’ ফ্লাইটে নতুনভাবে যাত্রা শুরু হবে বিমানবন্দরটির।

চূড়ান্তভাবে প্রত্যাশিত বিমানবন্দরটি চীনা রাজধানী এবং আশপাশের ভ্রমণকারীদের জন্য নতুন যুগের সূচনা করবে। যাত্রীসেবায় ইতোমধ্যেই বিমানবন্দরটি বিশ্বের দ্বিতীয় বিমানঘাঁটিতে রূপান্তরিত হয়েছে। সেভাবে সক্ষমতাও অর্জন করে বসেছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় নতুন ইস্তাম্বুল বিমানবন্দর অনুসরণ করে বানানো পিকেএক্স। যে কারণে ভ্রমণের জন্য কাঙ্ক্ষিত সময়ের মধ্যে বন্দরটিতে প্লেন যোগ করে রাখা প্রায় অসম্ভব এয়ারলাইন্সগুলোর পক্ষে।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম বলছে, ২০১৮ সালে ১০০ মিলিয়নেরও বেশি যাত্রী এই বিমানবন্দরের আগের তিনটি টার্মিনাল পেরিয়েছেন। আর বড় ধরনের এই যাত্রীর জট সামলানোর জন্য বিশ্বের সবচেয়ে ব্যস্ততম বিমানবন্দর যুক্তরাষ্ট্রের হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন আটলান্টারের পরে জায়গা করে নিয়েছে চীনা রাজধানী বিমানবন্দরটি।

এ হিসেবে, ২০২২ সালের মধ্যে চীন যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে নিজেরা বিশ্বের বৃহত্তম অ্যাভিয়েশন বাজার বসাবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। কেননা, বিমানবন্দরটির প্রাথমিক অপারেশনাল লক্ষ্য হলো- ২০২৫ সালের মধ্যে বার্ষিক ৭২ মিলিয়ন যাত্রী এবং দুই মিলিয়ন টন কার্গো সমন্বয় করা।

Aviation News