শাহজালাল বিমানবন্দরে বিদেশি ওষুধ-সিগারেট জব্দ

এই লেখাটি 67 বার পঠিত

রাজধানীতে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে পরিত্যক্ত মালিকবিহীন আমদানি নিয়ন্ত্রিত ও আমদানি নিষিদ্ধ ওষুধ, সিগারেট জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দার একটি দল।

শনিবার দুপুরের অভিযানে শ্রীলঙ্কা থেকে আগত একটি বিমানের লাগেজ থেকে প্রায় ৩০ লাখ টাকা মূল্যের এসব পণ্য জব্দ করা হয়েছে।

জব্দকৃত ওষুধগুলো হলো- রিতালিন-১০ ট্যাবলেট ১১৭০ পাতা, ক্যাভিনটন ২৫০ পাতা, প্রোজাক ৭০০ পাতা, লেকটেরেন ট্যাবলেট ১৭৫ পাতা, প্ল্যাভিক্স ২৪০ পাতা এবং ৩০ কার্ট সিগারেট। জব্দকৃত ওষুধগুলো নোভারটিস ব্র্যান্ডের।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, শ্রীলঙ্কা থেকে ছেড়ে আসা ইউএল-১৮৯ ফ্লাইটটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আনুমানিক সকাল সাড়ে ১১টায় অবতরণ করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দারা ব্যাগেজ বেল্টসহ গ্রিন চ্যানেলে বিশেষ নজরদারি ছিল। যাত্রীরা আট নম্বর বেল্ট থেকে লাগেজ সংগ্রহ করে গ্রিন চ্যানেল পার হয়ে চলে যাওয়ার পর ১টি লাগেজ দীর্ঘক্ষণ ধরে ব্যাগেজ বেল্টে পড়ে থাকে। শুল্ক গোয়েন্দা দল তা ভালভাবে নজরদারিতে রাখে এবং পরবর্তীতে কাস্টমস হলে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে লাগেজ খুলে বিদেশি ওষুধ ও সিগারেটগুলো পাওয়া যায়। আমদানি নীতি আদেশ অনুযায়ী ওষুধ শিল্প প্রশাসনের অনুমতি ব্যতিরেকে বিদেশি ওষুধ আমদানি করা যায় না। সংশ্লিষ্ট সবার উপস্থিতিতে দুপুর ১টায় এসব পণ্য জব্দ করা হয়। পণ্যের শুল্ককরসহ আটক ওষুধ ও সিগারেটের বাজার মূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা। আটককৃত পণ্যের বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

Aviation News