ছাত্রীর সন্তান কোলে নিয়ে ক্লাস নিলেন যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষক

এই লেখাটি 65 বার পঠিত

যুক্তরাষ্ট্রের আরকানসাস স্টেট ইউনিভার্সিটির ছাত্রী ক্রিস্টেন ব্ল্যাক। সন্তানের জন্মের কারণে পড়াশুনায় কিছুদিনের বিরতি দিতে হয়েছে ২১ বছর বয়সী ক্রিস্টেনকে। সন্তানের বয়স ৮ মাস হতেই নতুন সেমিস্টারে ক্লাস শুরু করেছেন তিনি।

কিন্তু এত ছোট্ট শিশুকে একা বাসায় রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসা সম্ভব হচ্ছিল না। এমন বিপদে ক্রিস্টেনের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তার শিক্ষক। ক্রিস্টেনকে তার সন্তান নিয়ে ক্লাসে আসার অনুমতি দেন তিনি। তবে অনুমতি দিয়েই নিজের দায়িত্ব শেষ করেননি ওই শিক্ষক। ছাত্রী যাতে পড়াশুনায় মনোযোগ দিতে পারেন, সেজন্য তিনি ক্রিস্টেনের সন্তানকে কোলে নিয়েই ক্লাস করান। খবর দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের।

এ ঘটনার কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেছে। এতে দেখা গেছে, ছাত্রীর সন্তানকে কোলে নিয়েই ক্লাস করাচ্ছেন ওই শিক্ষক।

ক্রিস্টেনের কোর্সের পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ের অধ্যাপক ব্রুস জনসন। পদার্থবিজ্ঞানের জটিল বিষয় ভালোভাবে শিক্ষার্থীদের বোঝাতে অতিরিক্ত ক্লাস নেন তিনি। কিন্তু সন্তানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই ক্লাসে অংশ নিতে পারছিলেন না ক্রিস্টেন। অবশেষে কোনো উপায় না পেয়ে, শিক্ষকের কাছে মেয়েকে সঙ্গে নিয়েই ক্লাসে আসার অনুমতি চান তিনি। এতে সাড়া দেন অধ্যাপক ব্রুস জনসন।

ক্রিস্টেন ও তার সন্তান

এ বিষয়ে ব্রুস বলেন, শিশুটি আমার দিকে তাকিয়ে হাসছিল। আর এভাবে যখন কেউ আপনার দিকে তাকিয়ে সুন্দর হাসি দেবে, তখন আপনি গলে যাবেন। তাই আমি ওকে কোলে নিয়েই ক্লাস শুরু করে দিই।

তিনি জানান, ক্লাস করতে ক্রিস্টেনের যাতে সুবিধা হয়, সে জন্য ভবিষ্যতেও এমন সহযোগিতা করবেন তিনি।

আর শিক্ষকের এমন মহানুভবতায় মুগ্ধ ক্রিস্টেন। তিনি অধ্যাপক ব্রুসকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আমার সন্তান অধ্যাপক জনসনের কোলে থাকায় ক্লাসে নোট নিতে বেশ সুবিধা হয়েছে। এটি ছিল অসাধারণ এক ঘটনা।

Aviation News