যশোর বিমানবন্দরে প্লেনে চিৎকার করা তরুণী প্রেমিকসহ কারাগারে

এই লেখাটি 231 বার পঠিত

যশোরে চিৎকার করে বিমান থেকে নেমে আসা তরুণী সাদিয়া ও তার কথিত প্রেমিক রায়হান হোসেনকে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে যশোর কোতোয়ালি থানা পুলিশ তাদের ৫৪ ধারায় আদালতে নিলে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ওসি আজমল হুদা বলেন, বিমান উড্ডয়নের সময় তরুণী চিৎকার দিয়ে বিমান থেকে নেমে এলে তাকে আটক করা হয়। আর বিমানবন্দরের অভ্যন্তরে থাকা তার প্রেমিককে কিছুক্ষণ পরে আটক করেছিল পুলিশ।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের যশোরের ব্যবস্থাপক সাব্বির হোসেন জানান, গত ৩ মার্চ সন্ধ্যায় ইউএস-বাংলার একটি উড়োজাহাজ উড্ডয়নের জন্য ইঞ্জিন চালু হলে সাদিয়া নামে ওই যাত্রী নেমে যাওয়ার জন্য হঠাৎ চিৎকার করে ওঠেন। তার এমন অস্বাভাবিক আচরণে বিমানের যাত্রীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ক্রুরা দরজা খুলে মেয়েটিকে নামিয়ে দেন।

এসময় তরুণীর এমন আচরণে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে পুলিশ। প্রায় আধা ঘণ্টা পর উড়োজাহাজটি বিমানবন্দর ছেড়ে যায়।

ওই বিমানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি ও জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকসহ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ যাত্রী ছিলেন। তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার খুলনার জনসভা শেষে ঢাকায় ফিরছিলেন।

যশোর কোতোয়ালি থানার ওসি আজমল হুদা বলেন, ‘ইঞ্জিন চালুর পরপরই মেয়েটি চিৎকার করে ওঠেন তাকে নামিয়ে দেয়ার জন্য। তিনি অসুস্থ বলে দাবি করলেও পরে জানা যায় তার প্রেমিক বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থান করছে এবং তাকে ফোন করে। ফোন পেয়েই তিনি চিৎকার করে ওঠেন। তখন তাকে নামিয়ে দেয়া হয়। পরে তাদের দুইজনকে আটক করে থানায় আনা হয়। রোববার দুপুরে তাদের ৫৪ ধারায় যশোর সদর আমলী আদালতে নেয়া হলে বিচারক কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

Aviation News