মদিনায় বাংলাদেশি শিক্ষার্থী পুরস্কৃত

এই লেখাটি 144 বার পঠিত

দাওয়াহ, আলোচনা, অনুবাদ, হাজীদের বিভিন্ন সেবা ও মিউজিয়ামের উন্নয়নকল্পে বিশেষ অবদানের জন্য বাংলাদেশি যাকারিয়্যা মাহমূদকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। সৌদি আরবের মদিনা মুনাওয়ারার গভর্নর ও যুবরাজ ড. ফয়সাল বিন সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের কাছ থেকে বিশেষ সম্মাননা গ্রহণ করেছেন তিনি।

বর্তমানে পবিত্র মসজিদে নববির আঙিনায় অবস্থিত আল কোরআন মিউজিয়ামের সহকারি ইনচার্জ ও বাংলা বিভাগের প্রধান হিসেবে আছেন যাকারিয়্যা মাহমূদ।

সম্প্রতি আসমাউল হুসনা মিউজিয়ামের ভিআইপি মিলনায়তনে এর প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে সৌদি বাদশাহর ছেলে সম্মাননা তুলে দেন বিজয়ীদের হাতে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ড. হাতেম বিন হাসান আল মারজুকি, মসজিদে নববির পরিচালনা কর্তৃপক্ষের প্রধান, আওকাফে ব্যাংক আল রাজেহির প্রধান, মিউজিয়ামের জেনারেল সুপারভাইজার, পরিচালক ও স্থানীয় প্রশাসন এবং সরকারের বিভিন্ন স্তরের গণ্যমান্য ব্যক্তি।

যাকারিয়্যা মাহমূদ বর্তমানে মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচারব্যবস্থা এবং ইসলামি রাষ্ট্রবিজ্ঞানের এমফিল গবেষক। এর আগে তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইসলামি আইনের ওপর ব্যচেলর ডিগ্রি অর্জন করেন। এর আগে তিনি বাংলাদেশের ফরিদাবাদ মাদ্রাসা থেকে পবিত্র হিফজুল কোরআন, লালবাগ মাদ্রাসা থেকে দাওরায়ে হাদিস ও যাত্রাবাড়ী মাদ্রাসা থেকে তাখাসসুস ফিল ফিকহি ওয়াল ইফতা কোর্স সম্পন্ন করে মুফতির সনদ লাভ করেন।

বাংলাদেশি এ স্কলার মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের আগে ‘আন্তর্জাতিক ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম’ এ অধ্যয়নরত ছিলেন। সেখান থেকে ২০০৮ সালে উচ্চশিক্ষায় রাজকীয় সৌদি আরব সরকারের স্কলারশিপ অর্জন করে মদিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গমন করেন।

Aviation News