সেই দিন ক্যাপ্টেন কোহলির বুধিমত্তায় প্রাণে বাঁচেন ২৬১ যাত্রী

এই লেখাটি 70 বার পঠিত

ঠিক যেন সিনেমা। জনপ্রিয় বাংলা ছবি ‘ককপিট’-এ নায়ক দেব অভিনীত পাইলট চরিত্রটির দৌলতেই বেঁচেছিল বিমানের যাত্রীদের প্রাণ। সেটা ছিল রিল লাইফের গল্প। কিন্তু মুম্বইয়ের আকাশে ২৬১ জন যাত্রীর প্রাণ যেভাবে বাঁচালেন সাহসিনী পাইলট, তা কোনও তৈরি চিত্রনাট্য নয়। একেবারে সত্যি ঘটনা।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, গত ৭ ফেব্রুয়ারি মুখোমুখি সংঘর্ষের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল দু’টি বিমানের মধ্যে। মুম্বইয়ের আকাশে ভিস্তারা ও এয়ার ইন্ডিয়ার দু’টি বিমান এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোলারদের ভুল বোঝাবুঝির কারণে মুখোমুখি চলে এসেছিল। ১০০ ফুট দূরত্বের মধ্যে চলে এসেছিল বিমান দু’টি।
ভুল বোঝাবুঝিতে ভিস্তারার দিল্লি থেকে পুণেগামী বিমান আচমকাই ২৯,০০০ ফুট থেকে নেমে আসে ২৭,০০০ ফুট উচ্চতায়। এয়ার ইন্ডিয়ার মুম্বই থেকে ভোপালগামী বিমানের চালক ছিলেন অনুপমা কোহলি। তিনি আচমকাই দেখেন ভিস্তারার বিমানটি দ্রুতবেগে ছুটে আসছে তাঁর বিমানের দিকে! সঙ্গে সঙ্গে বিমানকে উড়িয়ে ৬০০ ফুট উপরে নিয়ে যান তিনি। ঠান্ডা মাথায় প্রত্যুৎপন্নমতিত্বের সঙ্গে তিনি এই কাজ না করলে মাঝ আকাশে টুকরো টুকরো হয়ে যেত বিমান দু’টি।
এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের দায়িত্বে থাকা কর্মীদের বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি কোহলির প্রশংসায় পঞ্চমুখ সকলে। এতগুলি প্রাণ বাঁচিয়ে রাতারাতি তিনি খবরের শিরোনামে।

Aviation News