রাশিয়ায় বিমান দুর্ঘটনাস্থলে শুরু হয়েছে চিরুনি অভিযান

এই লেখাটি 153 বার পঠিত

রাশিয়ার তদন্তকারী দল মস্কোর পাশে গতকালের বিমান দুর্ঘটনাস্থলে চিরুনি অভিযান শুরু করেছে। যাত্রীবাহী বিমানটি কি কারণে দুর্ঘটনার কবলে পড়লো, সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ক্লু পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে দলটি।

স্যারাটভ এয়ারলাইনসের এন-১৪৮ মডেলের বিমানটি মস্কো থেকে উড়ালস যাওয়ার পথে বিমানটিতে থাকা ৭১ যাত্রীর সবাই নিহত হয়েছে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষ। উড্ডয়নের কিছু সময় পরেই মস্কোর ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বের একটি এলাকায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

সরকারি সূত্র বলছে, খারাপ আবহাওয়া, মনুষ্য সৃষ্ট ও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে মনে করছেন তারা। তবে সন্ত্রাসবাদের সম্ভাবনার বিষয়টি তারা উল্লেখ করেননি।

বরফাচ্ছাদিত দুর্ঘটনাস্থলে ৭০০জন তদন্ত দল অনুসন্ধান কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। ওই প্রত্যন্ত এলাকায় পায়ে হেঁটে ড্রোনের সাহায্যে উদ্ধার অভিযান চলছে। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলছেন, নিহতদের উদ্ধার কাজ শেষ করতে প্রায় এক সপ্তাহ লেগে যেতে পারে।

রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন। এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য গভীর শোক জানিয়েছে।

উল্লেখ, সারাটভ এয়ারলাইন্সের বিমানটি মস্কোর দমোদোভো বিমানবন্দর থেকে ওড়ার পর পরই বিধ্বস্ত হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেছেন, মস্কোর দক্ষিণ-পূর্বদিকের এলাকা আরগুনোভো থেকে তারা জ্বলন্ত বিমানটিকে মাটিতে পড়তে দেখেছেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে রাশিয়ার বিমান সংস্থাগুলোর বিমান আরও দুটি দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে কৃষ্ণসাগরে বিধ্বস্ত হয় একটি বিমান, মারা যায় ৯২ জন। এছাড়া ২০১৫ সালের অক্টোবরে মিশরের সাইনাই এলাকায় বিধ্বস্ত হয় আরেকটি বিমান, যাতে মারা যায় ২২৪ জন।

Aviation News