সিঙ্গাপুরে এয়ার’শো অনুষ্ঠিত

এই লেখাটি 102 বার পঠিত

গতকাল শেষ হয়েছে সিঙ্গাপুরে শুরু হওয়া দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম বিমানের প্রদর্শনী সিঙ্গাপুর এয়ার’শো। এবারের প্রদর্শনীতে যাত্রীবাহী বিমানের পাশাপাশি যুদ্ধবিমান নিয়ে অংশ নিয়েছে বিশ্বখ্যাত বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো। প্রদর্শনীতে এখনো পর্যন্ত দর্শনার্থী এসেছে প্রায় দেড় লাখ। বিশ্বের তিনটি বৃহত্তম বিমান প্রদর্শনীর একটি সিঙ্গাপুর এয়ার’শো। প্রদর্শনীতে নিজেদের তৈরি বিমান নিয়ে অংশ নিয়েছে ইউরোপের বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এয়ারবাস, যুক্তরাষ্ট্রের বিমান নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংসহ বিশ্বের শীর্ষ ১শ’ এভিয়েশন কোম্পানির অন্তত ৬৫ টি। এছাড়াও ৫০ টি দেশ থেকে অংশ নিয়েছে ছোট ও মাঝারি প্রযুক্তি নির্ভর অন্তত ১ হাজার ফার্ম। বাজার ধরতে সচেষ্ট চির প্রতিদ্বন্দী বোয়িং এয়ারবাস।

প্রদর্শনীতে বাণিজ্যিক এবং যুদ্ধবিমান নিয়ে অংশ নিয়েছে চীনের কমার্শিয়াল এয়ারক্রাফট কর্পোরেশন অব চায়না এবং চায়না ন্যাশনাল এভিয়েশন কর্পোরেশন। এ এয়ার’শোকে পশ্চিমা তো বটেই, সেইসাথে এশিয়ার দেশগুলোর জন্য বাণিজ্যিক একটি প্লাটফর্ম হিসেবে দেখছে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলো।

প্রদর্শনীতে দর্শনার্থীদের দৃষ্টি আকর্ষণে নতুন মডেলের যুদ্ধবিমান নিয়ে এসেছে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। এরমধ্যে ‘এফ টুটু’ বিমানটি পঞ্চম প্রজন্মের জন্য তৈরি। একটি সিট, দুটি ইঞ্জিন সংবলিত এ বিমান আকৃষ্ট করছে দর্শনার্থীদের। এছাড়াও রয়েছে রাশিয়ার ‘মিগ থ্রি ফাইভ’, যেটি একসাথে অন্তত ২৪ টি লক্ষ্যবস্তুকে টার্গেট করে আর আক্রমণ করে ৮ টি লক্ষ্যবস্তুকে। রাশিয়া আরো এনেছে ‘কে এ ফাইভ টু’ হেলিকপ্টার, যেটি মিসাইল দিয়ে টার্গেট করে স্থলে থাকা বস্তুকে। এটি মূলত ট্যাঙ্ক ধ্বংসের জন্য তৈরি।

Aviation News