মাটিতে ফেলে বিমানযাত্রীকে বিমানকর্মীদের মারধর!

এই লেখাটি 2080 বার পঠিত

113223image4_kalerkantho_picমাটিতে ফেলে এক বৃদ্ধের গলা টিপে ধরেছে এক যুবক। তাকে সাহায্য করছে অন্য একজন।

দেখে মনে হতে পারে রাস্তায় কোনো গুণ্ডাগিরি চলছে। কিন্তু এ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। গতকাল মঙ্গলবার ওই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যে আসে।

জানা গেছে, রাজীব খাটিয়াল নামে ওই বৃদ্ধ ইন্ডিগোর একটি বিমানের যাত্রী। আর তাঁকে মাটিতে চেপে ধরে যারা মারধর করছে, তারা ইন্ডিগোরই কর্মী।

আরো জানা গেছে, গত ১৫ অক্টোবর ইন্ডিগো বিমান থেকে দিল্লি বিমানবন্দরে নামার পরে টারম্যাকে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন রাজীব। তখনই জুবি থমাস নামে ইন্ডিগোর এক গ্রাউন্ড স্টাফের সঙ্গে কোনো কারণে ওই যাত্রীর বচসা শুরু হয়। একটি সূত্রের দাবি, ইন্ডিগোর কর্মীকে ওই যাত্রী প্রথমে গালাগাল করেন।

ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই যাত্রীকে বাসে উঠতে না দিয়ে টেনে আনছেন ইন্ডিগোর দু-তিনজন কর্মী।

এর পরই তাঁকে মাটিতে ফেলে মারধর শুরু হয়। রীতিমতো গলা টিপে ধরা হয় ওই যাত্রীর। এক মিনিটেরও বেশি সময় ধরে এই ধস্তাধস্তি চলতে থাকে। এর মধ্যেই ঘটনাস্থলে আসেন ইন্ডিগোর আরো বেশ কয়েকজন কর্মী।

এদিকে এ ঘটনার পর যে কর্মীরা ওই যাত্রীকে মারধর করেছে, তাদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ না নিয়ে মন্টু কালরা নামে এক কর্মীকে বরখাস্ত করেছে ইন্ডিগো। অথচ এই মন্টুই ঘটনার প্রতিবাদ করে নিজের মোবাইলে ভিডিও তুলে রেখেছিলেন বলে একাধিক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হচ্ছে।

এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে প্রবল সমালোচনা শুরু হওয়ার পরে ইন্ডিগো প্রেসিডেন্ট আদিত্য ঘোষ একটি লিখিত বিবৃতি দেন। বিবৃতিতে আদিত্য ঘোষ দাবি করেছেন, ঘটনার কথা জানতে পেরে সে দিনই তিনি নিজে ফোন করে ওই যাত্রীর কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

তাঁর কথায়, ইন্ডিগোতে যাত্রী এবং কর্মীদের সম্মানকেই সবথেকে বেশি অগ্রাধিকার দেওয়া হয়। যদি কোনো ঘটনায় আমাদের যাত্রী বা কোনও কর্মীর অসম্মান হয়, তাহলে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। এক্ষেত্রেও আমাদের ‘কোড অফ কনডাক্ট’ ভঙ্গ হওয়ায় তদন্ত করে অভিযুক্ত কর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

 

 

Aviation News