মাঝ আকাশে বিমান সংস্থাগুলো একাজ করলে গুনতে হবে জরিমানা

এই লেখাটি 332 বার পঠিত

plane-21-1482310802মাঝ আকাশে কয়েক হাজার ফুট উপরে উড়ন্ত অবস্থায় বিমানগুলি কোনওভাবেই শৌচাগারের বর্জ্য টয়লেট ট্যাঙ্ক থেকে নিচে নিক্ষেপ করতে পারবে না। কোনও বিমান সংস্থা এমন করতে গিয়ে ধরা পড়লে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের তরফে এমন নির্দেশই জারি করা হয়েছে। বিমান পরিবহণের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ডিজিসিএ যাতে এই বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করে সেজন্য জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। এই ব্যাপারটি যাতে নিশ্চিত করা যায় সেজন্য গ্রিন ট্রাইব্যুনাল ডিজিসিএ-কে পদক্ষেপ করতে বলেছে। অর্থাৎ মাঝ আকাশ থেকে শৌচাগারের বর্জ্য কোনওভাবেই মাটিতে ফেলা যাবে না। এমন করলে পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে বলে ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। জানা গিয়েছে, ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনাল ডিজিসিএ-কে জানিয়েছে, কোনও বিমান মাটি থেকে নেমে বিমানবন্দরে প্রবেশের পরই আচমকা হাজির হয়ে ইনস্পেকশন করতে হবে। শৌচাগারের বর্জ্য মাঝ আকাশে খালি করে দেওয়া হয়েছে কিনা সেটা দেখতে হবে। অবসরপ্রাপ্ত সেনা আধিকারিক লেফটেন্যান্ট জেনারেল সতয়ন্ত সিং দাহিয়া গ্রিন ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ জানান যে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আশপাশের লোকালয়ে আকাশ থেকে বর্জ্য ফেলা হচ্ছে। এরপরই গ্রিন ট্রাইব্যুনাল জানায়, এই ধরনের ঘটনা কেন্দ্রের স্বচ্ছ্ব ভারত অভিযান বিরোধী। ফলে এমন করলে বিমান সংস্থাগুলিকে শাস্তি পেতেই হবে। প্রসঙ্গত, বিমানের শৌচাগারের বর্জ্য জমা করার একটি চেম্বার থাকে। সেটি থেকে বর্জ্য আকাশ থেকে ফেলার সময়ে তা কমোডের জীবাণুমুক্ত রাখতে ব্যবহার করা কীটনাশকের সঙ্গে মিশে নীল রঙের হয়ে যায়। পরে তা এত হাজার ফুট উপর থেকে পড়ার সময়ে ঠান্ডা আবহাওয়ার সংস্পর্শে এসে বরফে পরিণত হয়ে যায়।

Aviation News