শেষ হয়েছে বিমান ও সৌদিয়ার হজ ফ্লাইট

এই লেখাটি 493 বার পঠিত

bimanশেষ হয়েছে হজ ফ্লাইট। শুক্রবার বিমান ও সৌদিয়া এয়ার লাইন্সের সর্বশেষ ফ্লাইট ঢাকায় আসে। এ দুটো এয়ারলাইন্সের সর্বশেষ ফ্লাইটে মোট ১ লাখ ২৪ হাজার ৯ হাজী ঢাকায় ফিরে এসেছেন। এ হিসাবে এখনও প্রায় হাজার তিনেক হাজী রয়ে গেছেন সৌদি আরবে। বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্যাপ্টেন এম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেছেন, বিমানের সর্বশেষ হজ ফ্লাইট শুক্রবার ঢাকায় আসার পর মোট ৬২ হাজার হাজী দেশে ফিরে আসার তথ্য রয়েছে। বাকি হাজীরা হয়ত সিডিউল ফ্লাইটে আগামী কদিনে দেশে ফিরে আসবেন। বিমান এ বছর মোট ৬৩ হাজার ৮২৩ জন হজযাত্রী বহন করে। বাকিগুলো বহন করে সৌদিয়া। এ পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, দুটো এয়ারলাইন্সেরই হাজি রয়ে গেছে সৌদি আরবে। তারা আদৌ ফিরবেন, নাকি থেকে যাবেন সেটা নিশ্চিত করতে পারছে না এ দুটো এয়ারলাইন্স।

পবিত্র হজব্রত পালন শেষে ৬ সেপ্টেম্বর থেকে দেশে ফিরতে শুরু করেন হাজিরা। শুরু থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং সৌদি এয়ারলাইন্স হাজিদের দেশে আনতে নিয়মিত ফিরতি হজ ফ্লাইট পরিচালনা করছে। শুক্রবার শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিমান বাংলাদেশ ও সৌদিয়ার ৩৪৩টি ফ্লাইটে করে ১ লাখ ২৪ হাজার ৯ জন হাজি দেশে ফিরেছেন।

এছাড়া বাংলাদেশ হজ তথ্য কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, হজব্রত পালনে সৌদি আরবে গিয়ে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মোট ১৫২ জন হাজি মৃত্যু হয়েছে। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার বরিশালের নিলুফা বেগম (৫০) পবিত্র মক্কা আল-মুকাররমায় মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) বলে জানা গেছে।

এবছর বিমান বাংলাদেশ ও সৌদিয়ার ৩৭০টি ফ্লাইটে বাংলাদেশ থেকে সরকারী ও বেসরকারী ব্যবস্থাপনায় মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ২২৯ জন হজযাত্রী (ব্যবস্থাপনা সদস্যসহ) হজব্রত পালনে সৌদি আরবে যায়। সুতরাং আগত হাজি এবং মৃত হাজিদের সংখ্যা বাদে এখনও ৩ হাজার ৬৮ জন হাজি সৌদি আরবে দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন।

বিমানের পরিচালক আলী আহসান বাবু বলেছেন, হজ ফ্লাইট সফলতার সঙ্গে শেষ করতে পারাটাই ছিল একটা বড় চ্যালেঞ্জ। অনেক প্রতিকূলতা মোকাবিলা করেই বিমান প্রতিটি হাজীকে সর্বোচচ সম্মান দিয়ে ঢাকায় ফিরিয়ে এনেছে। আল্লাহর মেহমানদের প্রতি বিমান যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গেই আনা নেয়ার দায়িত্ব পালন করেছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টায় বিমানের সর্বশেষ হজ ফ্লাইট ঢাকায় অবতরণ করে।

Aviation News