রোহিঙ্গা শিশু শরণার্থীদের জন্য ত্রাণ কার্যক্রম ঘোষণা করলো ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স

এই লেখাটি 250 বার পঠিত

US-Banglaইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বাংলাদেশের অন্যতম সেরা বেসরকারী বিমান পরিবহন সংস্থা। বর্তমানে রোহিঙ্গা শরণার্থী সংকটে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স পাশে থাকার প্রত্যয় ঘোষনা করেছে। এয়ারলাইন্সের আাগামী তিন মাসের টিকেট বিক্রির উপার্জন থেকে একটা অংশ রোহিঙ্গা শিশু শরণার্থীদের জন্য শিশু খাদ্য, বস্ত্র, ঔষধ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ।
বর্তমানে মিয়ানমার থেকে আগত রোহিঙ্গা শরণার্থীরা অবর্ণনীয় সীমাহীন কষ্টে দিনানিপাত করছে। জাতিসংঘের হিসাব অনুযায়ী ইতিমধ্যে প্রায় ৩ লক্ষ ৭০ হাজার শরণার্থী মিয়ানমার থেকে বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। এখনো বাংলাদেশের সীমান্ত এলাকার দিকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের স্্েরাত বিদ্যমান। চরম মানবিক সংকট দেখা দিয়েছে আশ্রয় শিবির গুলোতে। খাদ্য, চিকিৎসা, বাসস্থান, সেনিটেশন, ব¯্রসহ মানবিক বিপর্যয় দেখা দেওয়ার আশংকা রয়েছে সীমান্তের জেলা পর্যটন নগরী হিসেবে খ্যাত সমগ্র কক্সবাজার জেলায়। বাংলাদেশ সরকারসহ বিশ্বের অধিকাংশ রাষ্ট্র আশ্রিত শরণার্থীদের প্রতি সহানুভুতি দেখিয়েছেন। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ, আইওএম, বিশ্ব খাদ্য সংস্থা সকলেই রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রতি মানবিকতার মহানুভবতা দেখিয়েছে।
সারা দেশ থেকে সাধারন জনগনসহ বিভিন্ন সংগঠন রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মানবিক সংকট থেকে পরিত্রাণের জন্য নানাভাবে সাহায্য সহযোগিতা দিয়ে আসছে। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে শিশু শরণার্থীদের জন্য শিশু খাদ্য, ওষুধ, শিশু ব¯্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Aviation News