এবার মাত্র ১২ হাজার টাকায় ভারতীয়রা যেতে পারবেন ইউরোপে

এই লেখাটি 334 বার পঠিত

787-9 NPD #240-ZB127 Paint Rollout

দূরপাল্লার বিমানযাত্রা শুনলেই ভারতীয়দের মনে যে ছবিটা ভেসে ওঠে, সেটা হল যাত্রার মধ্যে একাধিকবার বিরতি, সঙ্গে একগাদা টাকার টিকিট। কিন্তু মোদি জমানায় চিত্রটা দ্রুতই পালটাতে চলেছে। কারণ, ইউরোপ, আমেরিকা, দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া এমনকী অস্ট্রেলিয়া যেতেও ভারতীয়রা এখন ব্যাপক আগ্রহ দেখাচ্ছেন। আর ভারতীয়দের এই আগ্রহের উড়ানে ভর করে ও নয়া আইন অনুযায়ী দ্রুতই এ দেশ থেকে ইউরোপ উড়ে যেতে ১২ থেকে ১৩ হাজার টাকার বেশি খরচ হবে না।

ভারতীয় সংস্থা স্পাইসজেট বা ইন্ডিগো-র মতো বাজেট এয়ারলাইন্স এখনই খুব সস্তায় ইউরোপ সফরের বন্দোবস্ত করে উঠতে না পারলেও সুখবর শুনিয়েছে সিঙ্গাপুরের এয়ারলাইন্সের ভরতুকিপ্রাপ্ত সংস্থা ‘স্কট’। ওই সংস্থার কাছে রয়েছে ‘ফিফথ ফ্রিডম’ রাইটস। যে পারমিট অনুযায়ী ভারত থেকে সরাসরি ইউরোপ যাওয়ার ছাড়পত্র পায় কোনও বিমান সংস্থা। ভারতে স্কট-এর প্রধান ভারথ মহাদেবণ বলছেন, ‘আমাদের কাছে ফিফথ পারমিট থাকায় আমরা দিল্লি, মুম্বই চেন্নাই বা কলকাতা থেকে সরাসরি কোপেনহাগেন, ভিয়েনা বা ম্যানচেস্টার নিয়ে যেতে পারি যাত্রীদের।’

সংস্থা জানায়, মুম্বই থেকে কোপেনহেগেন যেতে সবচেয়ে সস্তা ফ্লাইট টিকিটের দাম পড়বে ১২ থেকে ১৩ হাজার টাকার আশেপাশে। যার মধ্যেই মিলবে ২০ কিলোগ্রাম পর্যন্ত মালপত্র বহনের অনুমতি ও খাবারও। মহাদেবণ বলছেন, ‘বর্তমানে কোনও ভারতীয় শহর থেকে ইউরোপ যেতে টিকিটের দাম পড়ে ৪৫ হাজার টাকা। কিন্তু আমরা মাত্র ২৬ হাজার টাকায় যাওয়া ও আসার বন্দোবস্ত করব।’ মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলিতে যেতে আরও সস্তায় টিকিট মিলবেবলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।

তবে শুধু স্কট নয়, ভারতীয়দের বদলে যাওয়া রুচির সঙ্গে পাল্লা দিতে স্পাইসজেট ও ইন্ডিগো-ও তাদের প্রথম সরাসরি ইউরোপগামী বিমান পরিষেবা নিয়ে আসছে। পাশাপাশি, আরও একটি বিদেশি বিমান সংস্থা ‘নরওয়েজিয়ান এয়ার’ ভারতে দ্রুতই তাদের ব্যবসার পসার বসাতে চলেছে। পরিসংখ্যান বলছে, ভারত থেকে ইউরোপ উড়ে যেতে প্রতি সপ্তাহে প্রচুর মানুষ আগ্রহ দেখালেও বিমান বেছে নেওয়ার সুযোগ তাঁদের কাছে কমই থাকে। কিন্তু এবার সেই চিত্রটাও পালটাতে চলেছে। সেন্টার ফর এশিয়া প্যাসিফিক-এর কপিল কওল বলছেন, বড় বড় বিমান সংস্থার কাছে ভারতে দ্রুতই একটি লাভজনক ও আকর্ষণীয় বাজার তৈরি হচ্ছে।

Aviation News