মালয়েশিয়ায় দেওয়া হলো দুই দিনব্যাপী কন্স্যুলার সেবা

এই লেখাটি 153 বার পঠিত

malayasia1-20170910154947মালয়েশিয়ায় শনি ও রোববার সরকারি ছুটি থাকায় বাংলাদেশ দূতাবাস কর্মকর্তারা এ দুইদিন নিজেরাই বিভিন্ন প্রদেশে গিয়ে প্রবাসীদের কন্স্যুলার সেবা দিয়েছেন।

এতোদিন তারা শনিবার পেনাংয়ের বিশপ স্ট্রিট কন্স্যুলার অফিসে এবং রোববার বুকিত মারতাজামের সরকারি অগ্রণী রেমিটেন্স হাউজে মাসের ২য় সপ্তাহে কন্স্যুলার সেবা দিতেন। এখন ক্লাং অগ্রণী রেমিটেন্স হাউজে প্রথম বারের মত শুরু হয়েছে এ সেবা।

রোববার সকালে এ সেবার উদ্বোধন করেন দূতাবাসের শ্রম শাখার প্রথম সচিব মো. হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল। সেখানে আসা প্রবাসীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের সেবা প্রদানে দূতাবাসের সব কর্মকর্তা প্রস্তুত রয়েছেন।

পাসপোর্ট ও ভিসা শাখার প্রথম সচিব মো. মশিউর রহমান তালুকদার বলেন, কোনোভাবেই দালালদের কাছে যাবেন না। সিরিয়াল অনুযায়ী ডিজিটাল পাসপোর্ট তৈরি এবং নবায়ন থেকে শুরু করে আপনাদের সব রকম সেবা দিতে চেষ্টা চলছে।

এদিকে কন্স্যুলার সেবা নিতে আসা প্রবাসীরা জানান, আগে কুয়ালালামপুরে শুধু দূতাবাসে আসা–যাওয়ার জন্যই তাদের গাড়ি ভাড়া দিতে হত ৫০০ রিঙ্গিত। আর এখন মাত্র ১১৬ রিঙ্গিত খরচেই তারা পাসপোর্ট করতে পারছেন।

তারা আরও জানান, প্রত্যেক প্রদেশে দূতাবাসের এ কন্স্যুলার সেবা অব্যাহত থাকায় এখন খরচ কম লাগছে। এ সেবা অব্যাহত থাকলে কেউ আর দালালের শরণাপন্ন হবেন না।

উল্লেখ্য মালয়েশিয়ায় এ কন্স্যুলার সেবা প্রদানে মো. হেদায়েতুল ইসলাম মন্ডল ও মো. মশিউর রহমানের নেতৃত্বে আরও রয়েছেন, সুশান্ত সরকার, মো. সাজ্জাদ হোসাইন, স্মৃতিরানী সাহা, মো. গোলাম কিবরিয়া।

এ ছাড়া ফার্ষ্ট সেক্রেটারি এম এসকে শাহীনের নেতৃত্বে ক্লাংয়ে প্রবাসীদের কন্স্যুলার সেবা দিচ্ছেন মো. আব্দুস সোবহান মন্ডল, মো. মাহমুদ মিয়া ও উম্মে হানি।

Aviation News