উড্ডয়ন করতে না করতেই বিমানে ধোঁয়া, তড়িঘড়ি নামলেন যাত্রীরা

এই লেখাটি 256 বার পঠিত

imageযাত্রীদের নিয়ে কলকাতা থেকে সবে গড়াতে শুরু করেছিল বিমান। তখনই ধোঁয়া বেরোতে শুরু করে ইঞ্জিন থেকে। ঘাবড়ে গিয়ে পাইলট বিমানটি দাঁড় করিয়ে কলকাতার এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল (এটিসি)-কে তিন বার ‘মে ডে’, ‘মে ডে’ বলে বার্তা পাঠান। চূড়ান্ত বিপদে পড়লে তবেই কোনও পাইলট তিন বার এই ‘মে ডে’ বার্তা পাঠান। বিমানের ইমার্জেন্সি দরজা খুলে রবারের স্লিপের সাহায্যে (ইমার্জেন্সি শ্যুট) যাত্রীদের নামিয়ে আনা হয় টারম্যাকে। উপকূলরক্ষী বাহিনী এবং বিমানবন্দরের কর্মীদের সহায়তায় যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়। এ ভাবে রবারের স্লিপ দিয়ে নামতে গিয়ে কয়েক জন যাত্রী ও বিমানসেবিকা আহত হয়েছেন বলেও বিমানবন্দর সূত্রে জানা গিয়েছে।
বেসরকারি ভুটান এয়ারলাইন্সের এই বিমানটি এ দিন সকালে যাত্রীদের নিয়ে ভুটানের পারো থেকে কলকাতায় আসে। কলকাতা বিমানবন্দরের ৫৯ নম্বর অ্যরোব্রিজে যাত্রীদের নামিয়ে দেয়। বিমানটির কলকাতা থেকে ব্যাঙ্কক যাওয়ার কথা ছিল। ৬১ জন যাত্রীকে নিয়ে ৫ বিমানসেবিকা এবং দুই পাইলট শনিবার দুপুর বারোটা নাগাদ রওনা হন। অ্যারোব্রিজে বিমান থাকলে প্রথমে তাকে ছোট গাড়ির সাহায্যে পিছন দিকে কিছুটা টেনে নিয়ে যাওয়া হয়। তার পরে বিমানটি নিজে থেকে সামনের দিকে গড়াতে শুরু করে। বিমানবন্দর সূত্রে জানা গিয়েছে, এ দিন ভুটান এয়ারলাইন্সের ওই বিমানটিকে তখন পিছন দিকে টেনে এফ২ ট্যাক্সিওয়েতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। সেই সময়ে তার ইঞ্জিনের পিছন দিক থেকে ধোঁয়া দেখতে পাওয়া যায়।

Aviation News