আরও ৬ মাস ‘অত্যাবশ্যকীয় সেবা’র আওতায় বিমান

এই লেখাটি 772 বার পঠিত

Biman-Bangladesh-Airlinesরাষ্ট্রীয় বিমান পরিবহন সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চাকরি ‘অত্যাবশ্যকীয় সেবা’র (এসেনশিয়াল সার্ভিস) আওতায় আরও ৬ মাস থাকছে। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৪ মার্চ ট্রেড ইউনিয়নগুলোকে নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে বিমানে শৃঙ্খলা ফেরাতে ১৯৫৮ সালের এসেনশিয়াল সার্ভিসেস অর্ডিন্যান্সের ক্ষমতাবলে বিমানকর্মীদের চাকরিকে অত্যাবশ্যকীয় সেবার আওতায় আনা হয়। সেই মেয়াদ শেষ হচ্ছে ১৩ সেপ্টেম্বর।

শ্রম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, ‘অত্যাবশ্যকীয় সেবা’ ঘোষণার প্রযোজ্যতার মেয়াদ ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে আরও ৬ মাসের জন্য বৃদ্ধি করা হলো।

এতে আরও বলা হয়, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের অধীনস্থ সব শ্রেণির চাকরির ক্ষেত্রে এসেনশিয়াল সার্ভিসেস অর্ডিন্যান্সের প্রযোজ্যতার মেয়াদ ১৩ সেপ্টেম্বর শেষ হলেও বিমানের সব শ্রেণির চাকরির ক্ষেত্রে এ অধ্যাদেশের প্রযোজ্যতার প্রয়োজনীয়তা এখনও রয়েছে।

এ ছাড়া এসেনশিয়াল সার্ভিসেস অর্ডিন্যান্সের আওতায় আসার কারণে কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী ঊর্ধ্বতনদের কোনো নির্দেশ অমান্য করতে পারবেন না। কর্মবিরতি, ধর্মঘট ও বিনা নোটিশে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকতে পারবেন না। এসব কাজ করলে শাস্তির মুখে পড়তে হবে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে কর্মরত অনেক সিবিএ নেতার বিরুদ্ধে আদম ও মুদ্রা পাচার, চোরাচালানসহ নানান ধরনের অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা বা বদলি করতে গিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিমানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সিবিএ নেতাদের হাতে হেনস্তা ও আন্দোলনের মুখে পড়েছেন। এ জন্য বেসামরিক বিমান চালাচল ও পর্যটন মন্ত্রণালয় থেকে বিমানকে এসেনশিয়াল সার্ভিসেস অর্ডিন্যান্সের আওতায় আনতে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪ডটকম

Aviation News