হজের সময় বিমান ভাড়া বেঁড়ে যায় দ্বিগুণ

এই লেখাটি 350 বার পঠিত

Hajj-bimanহজের সময় বিমান ভাড়া দ্বিগুণ করাকে অমানবিক মন্তব্য করে অবিলম্বে ভাড়া কমানোর দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হজযাত্রী ও হাজী কল্যাণ পরিষদ। গতকাল এক বিবৃতিতে সংগঠনটির সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুল্লাহ আন নাসের এ দাবি জানান। তিনি বলেন, ওমরার সময় বিমান ভাড়া মাত্র ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা রাখা হলেও এবার হজের সময় বিমান ভাড়া রাখা হয়েছে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা। অর্থাৎ ওমরার সময়ের চেয়ে দ্বিগুণেরও বেশি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। আবদুল্লাহ আন নাসের বলেন, বাংলাদেশ বিমান সারা বছর ব্যবসা করতে পারে না। এ জন্য হজের সময় তারা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ভাড়া দ্বিগুণ করে দেয়। বাধ্যতামূলক ভাড়া আদায় করার কারণে না দিয়েও উপায়ও থাকে না। এতে হাজীরা ক্ষতিগ্রস্ত হন। পবিত্র হজ নিয়ে এ ধরনের ব্যবসা করা অনৈতিক উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিমান ব্যবসা করতে পারে না এটা তাদের ব্যর্থতা, এর দায়ভার হাজীদের ওপর বর্তাবে কেন? দীর্ঘ দিন থেকে এ ব্যাপারে প্রতিবাদ জানিয়ে এলেও কোনো কাজ হচ্ছে না জানিয়ে নাসের বলেন, আদালত সম্প্রতি বাংলাদেশ বিমান ও সৌদি এয়ারলাইন্সের বাইরে থার্ড ক্যারিয়ার চালুর পক্ষে রায় দিলেও সরকার এর বিরুদ্ধে আপিল করায় এ বছর হজে থার্ড ক্যারিয়ার চালু নিয়ে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। তিনি অবিলম্বে এ সমস্যার সমাধান দাবি করে বলেন, নির্ধারিত দুটি বিমানের বাইরে প্রতিযোগিতামূলক অন্য বিমান সংস্থাও হাজী পরিবহনে যুক্ত হলে কমপক্ষে ২৫ হাজার টাকার সাশ্রয় পাবেন হজযাত্রীরা।

Aviation News