জরিপে ‘সেক্স রোবটে’ মানুষের চাহিদা

এই লেখাটি 138 বার পঠিত

studyrevealswhoismostlikelyসম্প্রতি প্রকাশিত এক গবেষণায় প্রতিবেদন থেকে শিক্ষাবিদরা ধারণা করছেন ২০৫০ সালের মধ্যে যৌনসঙ্গী হিসেবে রোবটকে বেছে নেওয়ার হার অনেক বেড়ে যাবে।

‘কী ধরনের বৈশিষ্ট্যের’ জন্য মানুষ রোবটের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনে বেশি উদ্বুদ্ধ হবে তা খুঁজে বের করতে ইতোমধ্যেই জার্মানিতে গবেষণা শুরু করা হয়েছে। ‘যান্ত্রিক বস্তুর’ সঙ্গে এমন সম্পর্ক স্থাপন যখন ঘৃণ্য বলে বিবেচিত হচ্ছে, তখনই নতুন প্রযুক্তিকে এগিয়ে আনতে কারা উৎসাহী তা বের করতে এই গবেষণা বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

ইউনিভার্সিটি অফ লন্ডনে অনুষ্ঠিত ‘সেক্স উইথ রোবট’ শীর্ষক সম্মেলনে জার্মানির ডুইসবার্গ-এসেন এর গবেষক জেসিকা এম সিজুকা বলেন, “আমি দেখতে চাচ্ছি কেমন ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন মানুষ যৌন কাজে রোবট ব্যবহারে বেশি উৎসাহী।”

সিজুকা অধ্যাপক নিকোল ক্র্যামারের সঙ্গে ১৮ থেকে ৬৭ বছর বয়সী ২৬৩ জন বিসমকামী পুরুষের উপর একটি অনলাইন জরিপ পরিচালনা করেন।

জরিপে, পুরুষদেরকে বিভিন্ন নারী রোবটের উপর দুই মিনিটের ভিডিও দেখানো হয়। বিভিন্ন প্রশ্ন করার মাধ্যমে তাদের ‘ব্যক্তিত্ব পরিমাপ’ আর ‘আকর্ষণীয়তা রেটিং’ করা হয়।

জরিপে তাদের কাছে এক প্রশ্নে জানতে চাওয়া হয় তারা কী পরবর্তী পাঁচ বছরের মধ্যে এমন কোনো রোবট কিনতে ইচ্ছুক কিনা। তাদের প্রায় ৪০.৩ শতাংশ প্রত্যুত্তরে জানান তারা ‘কিনতে পারেন’।

তিনি জরিপের কিছু সীমাবদ্ধতাও তুলে ধরেন। রোবটের দাম কতো হতে পারে তাও নির্ধারণ করা হয়নি। তিনি আরও বলেন, “পরবর্তীতে সেক্স রোবটের চাহিদার বিষয়ে নারীদের উপরও জরিপ করা হতে পারে।”

Aviation News