‘আটক ড্রোন ফেরত দেবে চীন’

এই লেখাটি 155 বার পঠিত

a5a213dbac07e9806ed2290c39ede3f6-us-underwater-droneযুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন বলছে, পানিতে চলাচল করা আটক মার্কিন ড্রোনটি ফেরত পাওয়ার বিষয়ে চীনের সঙ্গে তাদের একটি সমঝোতা হয়েছে। আজ রোববার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

গত বৃহস্পতিবার দক্ষিণ চীন সাগরের আন্তর্জাতিক জলসীমায় যুক্তরাষ্ট্রের একটি চালকবিহীন ড্রোন আটক করে চীন। এ নিয়ে দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

পেন্টাগন জানায়, আটকের সময় মার্কিন ড্রোনটি পানির নিচে বৈজ্ঞানিক গবেষণায় নিয়োজিত ছিল।

আটক ড্রোনটি দ্রুত ফেরত দিতে চীনের প্রতি দাবি জানায় যুক্তরাষ্ট্র। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে এই ঘটনার পুনরাবৃতি না করতে বেইজিংকে সতর্ক করে দেয় ওয়াশিংটন।

ড্রোন আটকের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিক্রিয়া জানান। তিনি চীনের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ করেন।

ট্রাম্প বলেন, আন্তর্জাতিক জলসীমায় যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর গবেষণা ড্রোন চুরি করেছে চীন। বেইজিংয়ের এই কাজকে নজিরবিহীন বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ক্ষুব্ধ ট্রাম্প টুইটারে লিখেন, চীনকে যুক্তরাষ্ট্রের বলা উচিত, তারা যে ড্রোনটি চুরি করেছে, তা ফেরত চাই না। তারা ড্রোন রেখে দিক।

তবে পেন্টাগনের এক মুখপাত্র গতকাল শনিবার বলেন, ড্রোন ফেরতের বিষয়ে চীনের সঙ্গে তাদের একটি সমঝোতা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগনের মুখপাত্র পিটার কুক বলেন, চীনা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা হয়েছে। আটক ড্রোনটি চীন ফেরত দেবে বলে একটি সমঝোতা হয়েছে।

চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আটক করা মার্কিন ড্রোনটি যথাযথ পন্থায় ফেরত দেওয়া হবে। তবে কখন ও কীভাবে ড্রোনটি ফেরত দেওয়া হবে, তা স্পষ্ট করেনি বেইজিং।

Aviation News