প্রলোভন দিয়ে কিডনি বিক্রির চেষ্টা, বাবা-ছেলেকে গণপিটুনি

এই লেখাটি 257 বার পঠিত

1477398368কিডনী চোর সন্দেহে গাংনী উপজেলা শহরের ঝিনেরপুলপাড়া এলাকার ফাতেমা নার্সারির মালিক সিরাজুল ইসলাম ওরফে ভিকু (৭০) ও তার ছেলে হযরত আলীকে (৩৫) গণপিটুনি দিয়েছে স্থানীয়রা।

মঙ্গলবার রাজশাহী থেকে ধরে এনে গাংনী শহরে এমপি মকবুল হোসেনের বাড়ির সামনে বিকাল ৩টার সময় তাদের পিটুনি দেয়া হয়। পরে গাংনী থানার পুলিশ তাদের উদ্ধার করে।

এদিকে রাজশাহীর মেরি স্টোপ ক্লিনিকের একটি কক্ষ থেকে গাংনী বাজারপাড়া এলাকার মৃত রাহাত আলীর ছেলে গোলাম হোসেন (২৮) ও শিশিরপাড়া গ্রামের মৃত রিয়াজ আলীর ছেলে আতিয়ার রহমানকে (৪৫) উদ্ধার করেছে পরিবারের লোকজন। আতিয়ার রহমান পেশায় ভ্যানচালক ও গোলাম হোসেন মানসিক প্রতিবন্ধী।

আহত ভিকু ও তার ছেলে হযরত আলীকে গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

গোলাম হোসেনের ভাই শ্যামলী পরিবহনের চালক আব্দুল মালেক বলেন, ‘সোমবার সকাল থেকেই আমার ভাইকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। তারপর এলাকায় বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করি। অবশেষে গাংনী থানায় একটি জিডি করা হয়। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে রাজশাহীর মেরি স্টোপ ক্লিনিকের কক্ষ থেকে গোলাম হোসেন ও আতিয়ার রহমানকে উদ্ধার করি। পরে পুলিশের সহায়তায় ভিকু ও তার ছেলে হযরতকে আটক করি।’

সহকারী পুলিশ সুপার শেখ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বিষয়টি নিয়ে তাদের দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এখনি কোন কিছু বলা যাবেনা।

Aviation News