দুবাইয়ে বাংলাদেশি সালামের কৃতিত্ব

এই লেখাটি 186 বার পঠিত

salamসংযুক্ত আরব আমিরাতের গালফ এর বিখ্যাত শারজাহ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলাদেশের ছেলে আবদুস সালাম সায়েদ করিম ইসলামী স্ট্যাডিজ নিয়ে মাস্টার্স শেষ করেছেন। বাংলাদেশের মুসলিম পারিবারিক আইনের উপর গবেষণা ও মতবাদ তুলে ধরে বাংলাদেশি আইনের সাথে সম্পৃক্ততা রেখে আরবি ভাষায় তিনি লিখেছেন ৩০০ পৃষ্ঠার বই ‘কোর্ট ডিভোর্স’। বাংলাদেশের আদালতে নারী অধিকার ও নির্যাতন বিষয়ে যে সকল ধারা আছে সেসব ধারাগুলো গুরুত্ব সহকারে স্থান পেয়েছে তার বই।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে শারজা বিশ্ববিদ্যালয়ে এম ওয়ান ভবনের আল বুখারী হল রুমে অনুষ্ঠিত ‘দ্যা ডিসকাশন অফ মাস্টার্স থিসিস’ সেমিনারে বাংলাদেশের প্রচলিত পারিবারিক আইন ও আরবি ভাষা লিখিত ‘কোর্ট ডিভোর্স ‘ নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপারভাইজার অধ্যাপক ইসমাইল কাজিম আল ইসসারী, আল আইন ইউএসটি এর আইনশাস্ত্রের সহকারী অধ্যাপক ড. মাহমুদ মজিদ আল খুবাইসি, শারজাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনশাস্ত্রের সহকারী অধ্যাপক ড.মোহাম্মদ সুলাইমান আল নূর।

সম্পূর্ণ আরবি ভাষায় চলে দীর্ঘ দুই ঘণ্টা আলোচনা। সেমিনারে আরবি ভাষাভাষীর গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিসহ কমিউনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন। পরে আলোচকরা আবদুস সালাম সায়েদ করিমের গবেষণার স্বীকৃতিস্বরূপ ক্রেস্ট তুলে দেন।

সেমিনার পরবর্তী আবদুস সালাম সায়েদ করিম বলেন, ‘বাংলাদেশের আইন সম্পর্কে অ্যারাবীয়ানদের একটি ধারণা দেওয়ার জন্য আরবি ভাষায় আমাকে লিখতে হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষও আমার বিষয়টিকে সাদরে গ্রহণ করেছেন। খুব শিগগিরই এটি আরবি থেকে ইংরেজি ও বাংলায় অনুবাদ করা হবে।’

উল্লেখ্য, কক্সবাজার জেলার টেকনাফ থানার আবদুস সালাম সায়েদ করিম ১৯৯৮ সালে মিশর যান। সেখানে তিনি আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইসলামী স্ট্যাডিজ এ বিএ অনার্স শেষ করেন। তিনি আরবি ভাষায় লিখেছেন ‘ ইমাম আবু আল হাছান আল নাদউয়ি ‘ নামে একটি বই। এছাড়াও আরবি ভাষায় অনুবাদ করেছেন ইসলামী ফাউন্ডেশনের বই ‘জীবন পথের দিশা’।

Aviation News