বাংলাদেশ থেকে পুরুষ গৃহকর্মী নেবে সৌদি আরব

এই লেখাটি 209 বার পঠিত

indexবাংলাদেশ থেকে পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগের একটি বিলে অনুমোদন দিয়েছে সৌদি আরবের শূরা কাউন্সিল। ফলে এখন থেকে বাংলাদেশি নারীর পাশাপাশি পুরুষরাও গৃহকর্মীর ভিসা নিয়ে ওই দেশে যেতে পারবেন। রিয়াদে শূরা কাউন্সিলের সহকারী স্পিকার ইয়াহিয়া বিন আবদুল্লাহ আল-সামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শূরা কাউন্সিলের ৪৯তম সাধারণ সভায় এ নিয়োগ দেওয়া হয়। এ সভায় বাংলাদেশ থেকে পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগের সুপারিশ করেন কাউন্সিল কমিটির প্রশাসন ও মানবসম্পদ বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নাগাদি। এরপর এ সুপারিশে অনুমোদন দেয় শূরা কাউন্সিল।
গতকাল আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, বর্তমানে সৌদি আরবের প্রায় ৪৮টি বিভাগে প্রায় ১৩ লাখ বাংলাদেশি নিয়োজিত আছেন। এর মধ্যে গৃহকর্মীর কাজে নিয়োজিত আছেন প্রায় ৬২ হাজার।
এতে আরও জানানো হয়, ২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ওই দেশে বাংলাদেশি গৃহকর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়। বর্তমানে বাংলাদেশ থেকে গৃহকর্মী হিসেবে শুধু নারীদের ভিসা দেয় সৌদি আরব। প্রতিমাসে গড়ে ৬ হাজার বাংলাদেশি নারী গৃহকর্মী হিসেবে ওই দেশে যান। তবে এখন পর্যন্ত কোনো বাংলাদেশি পুরুষ গৃহকর্মীর ভিসা নিয়ে ওই দেশে যাননি। নতুন বিল অনুমোদন দেওয়ায় এখন থেকে বাংলাদেশি পুরুষরাও গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরবে যেতে পারবেন।
শূরা কাউন্সিলের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে সৌদি আরবে নিয়োজিত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত গোলাম মশি আরব নিউজ পত্রিকাকে বলেন, যৌথ কারিগরি কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সৌদি আরবে বাংলাদেশের পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগে দুই দেশই খুব ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে। এর ধারাবাহিকতায় সৌদি আরবের শূরা কাউন্সিলের পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগের সিদ্ধান্ত দুই দেশের জন্যই লাভজনক হবে। এ সিদ্ধান্তের ফলে জনশক্তি খাতে সম্পর্ক উন্নয়নে উভয় দেশের প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন হবে।
তিনি বলেন, বর্তমানে ঢাকায় তিনটি সৌদি প্রতিষ্ঠান নারী গৃহকর্মীদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে। পুরুষ গৃহকর্মী নিয়োগের আগে তাদেরও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হলে তা সুফল বয়ে আনবে।

Aviation News