সৌদি এয়ারলাইন্সের হজ টিকেট সিন্ডিকেটের দখলে

এই লেখাটি 1153 বার পঠিত

????????????????????????????????????

সৌদি এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আসন্ন হজের ৫০ সহস্রাধিক বিমান টিকিট হাতেগোনা কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্টের হাতে তুলে দিয়ে সিন্ডিকেট ব্যবসার সুযোগ করে দেয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে মোট ১ লাখ ১ হাজার ৭৫৮ জনকে পবিত্র হজ পালনের অনুমতি দিয়েছে সৌদি সরকার। প্রচলিত নিয়মানুসারে মোট হজযাত্রীর শতকরা ৫০ ভাগ রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং অবশিষ্ট যাত্রী সৌদি এয়ারলাইন্স পরিবহন করবে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, বাংলাদেশে শত শত ট্রাভেল এজেন্ট হজ কার্যক্রমে জড়িত থাকলেও সম্প্রতি সৌদি এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ মাত্র ২০টি ট্রাভেল এজেন্টকে অগ্রাধিকার দিয়ে প্রায় ৫১ হাজার টিকিট বিক্রির অনুমতি দিয়েছে।

ওই সকল ট্রাভেল এজেন্ট বর্তমানে বিভিন্ন হজ এজেন্সির কাছ থেকে টিকিটের নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে প্রতি টিকিটে অতিরিক্ত দেড়শ থেকে ২০০ ডলার দাবি করছে। সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের হাতে টিকিট তুলে দেয়ার জন্য অতিরিক্ত টাকার বোঝা সাধারণ হজযাত্রীর ওপর বর্তাবে বলে মন্তব্য করেছে হজ এজেন্সিগুলো।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, হজ এজেন্সিস অব বাংলাদেশের (হাব) শীর্ষ নেতারা বুধবার আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠকে এ প্রসঙ্গটি উত্থাপন করেন। তারা হাতেগোনা কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্টের কাছে অর্ধলাখ হজ টিকিট তুলে দেয়ার ঘটনায় সৌদি এয়ারলাইন্সের কঠোর সমালোচনা করে তা শতাধিক ট্রাভেল এজেন্টের কাছে দেয়ার দাবি জানান।

হাব নেতারা অভিযোগ করেন, সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীরা ইতোমধ্যেই বিভিন্ন হজ এজেন্সিকে টিকিটপ্রতি ২০০ ডলার অতিরিক্ত না দিলে ভালো টিকিট দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে। তারা বলেন, সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকিট নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে কিনতে হলে হজ এজেন্সিগুলো এক টাকাও পকেট থেকে দেবে না। হজ যাত্রীদেরই তা প্রদান করতে হবে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, একাধিক হজ এজেন্সির কর্মকর্তা জাগো নিউজকে বলেন, দুটি ট্রাভেল এজেন্টের সঙ্গে ( এস ও কে আদ্যক্ষর দিয়ে শুরু ট্রাভেল এজেন্ট) অংশীদারি ব্যবসায় জড়িত সৌদি এয়ারলাইন্সের এক শীর্ষ কর্মকর্তা (নামের আদ্যাক্ষর ইংরেজি আর) এই সিন্ডিকেট ব্যবসার সুযোগ করে দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাবের সভাপতি বলেন, আসন্ন হজ মৌসুমে সৌদি এয়ারলাইন্স অর্ধলাখের বেশি টিকিট গুটিকয়েক ট্রাভেল এজেন্টকে দিয়েছে, জানতে পেরে তা বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের জানিয়েছি। তারা বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে দেখবেন বলে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু বলতে রাজি হননি তিনি।

Aviation News