স্বীকৃতি পেলে সেনা নেতৃত্বকে ছাড় দেবে যুক্তরাষ্ট্র

এই লেখাটি 123 বার পঠিত
usa

স্বীকৃতি পেলে সেনা নেতৃত্বকে ছাড় দেবে যুক্তরাষ্ট্র।

ভেনিজুয়েলার বিরোধী দলের নেতা হুয়ান গুয়াইদোকে দেশটির অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্টের স্বীকৃতি দিলে দেশটির সামরিক নেতাদের শাস্তিমূলক নিষেধাজ্ঞা থেকে অব্যাহতি দেবে ওয়াশিংটন। গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের উপদেষ্টা এ কথা জানিয়েছেন।

অন্যদিকে রাশিয়া বলেছে, ভেনিজুয়েলায় অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাইরের হস্তক্ষেপ, বিশেষ করে সামরিক হস্তক্ষেপ হবে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি। মন্টিভিডিওতে অনুষ্ঠেয় ইউরোপীয় ইউনিয়নের নেতৃত্বাধীন ভেনিজুয়েলাবিষয়ক আন্তর্জাতিক কনটাক্ট গ্রুপের সংলাপকে সামনে রেখে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন। একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, তাদেরকে ওই সংলাপে অংশ নিতে দেওয়া হচ্ছে না।

গত বুধবার টুইটারে জন বোল্টন ভেনিজুয়েলার সামরিক বাহিনীর শীর্ষ নেতৃত্বকে উদ্দেশ করে লিখেছেন, ‘ভেনিজুয়েলার যেকোনো জ্যেষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তা যদি দেশটির গণতন্ত্রের পক্ষে দাঁড়ান এবং এবং হুয়ান গুয়াইদোর সাংবিধানিক সরকারকে মেনে নেন, আমরা তাঁর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের চিন্তা করব। কিন্তু যদি সেটা না হয়, তাহলে (তাঁদের জন্য) আন্তর্জাতিক অর্থব্যবস্থা (ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যানশিয়াল সার্কেল) পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে।’ তিনি জ্যেষ্ঠ সামরিক নেতৃবৃন্দকে সঠিক পছন্দ বেছে নেওয়ার আহ্বান জানান।

গত বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাঁর স্টেট অব ইউনিয়ন ভাষণে ভেনিজুয়েলার সমাজতান্ত্রিক সরকারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখার যে ঘোষণা দেন, এরই ধারাবাহিকতার সামরিক বাহিনীকে লক্ষ্য করে বক্তব্য দিলেন তাঁর জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা বোল্টন। এর আগে ভেনিজুয়েলার পার্লামেন্টের নেতা হুয়ান গুয়াইদো যখন গত মাসে নিজেকে অন্তর্বর্তী প্রেসিডেন্ট ঘোষণা দেন, তখন দ্রুততম সময়ের মধ্যে তাঁকে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

অন্যদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার লাতিন আমেরিকান দেশ উরুগুয়ের রাজধানী মন্টিভিডিওতে ‘ভেনিজুয়েলাবিষয়ক আন্তর্জাতিক কনটাক্ট গ্রুপ’ সংলাপে বসার কথা। গুয়াইদোকে স্বীকৃতি দেওয়া ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও উরুগুয়ে যৌথভাবে এই সংলাপের আয়োজন করেছে। এ বিষয়ে রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী সার্জেই রিয়াভকভ বলেছেন, ‘ভেনিজুয়েলার রাজনৈতিক সংকটের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সংলাপে রাশিয়ার অংশগ্রহণ নিমন্ত্রণের ওপর নির্ভর করে। তিনি বলেন, ‘আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম যে মন্টিভিডিওতে অনুষ্ঠিতব্য এই প্রক্রিয়ার আমাদের অংশ নেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হবে, অন্তত পর্যবেক্ষক দেশ হিসেবে। কিন্তু আমাদের বলা হয়েছে যে এই ধরনের ফরমেটে তা সম্ভব নয়।’ কিন্তু কে এই সিদ্ধান্ত দিয়েছে, তা তিনি পরিষ্কার করে বলেননি। সূত্র : এএফপি, স্পুৎনিক নিউজ।

Aviation News