শ্রীলঙ্কার পতন দুঃখ দেয় মুরালিধরনকে

এই লেখাটি 75 বার পঠিত
muralitharan

শ্রীলঙ্কার পতন দুঃখ দেয় মুরালিধরনকে।

নামতে নামতে প্রায় তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট। জয়সুরিয়া, জয়াবর্ধনে, মুরালিধরন, সাঙ্গাকারা, ভাস, দিলশানরা অবসর নেওয়ার পর যেন খেই হারিয়ে ফেলেছে তারা। দলের এই অবস্থা দেখে কষ্ট পান ক্রিকেটের অন্যতম সেরা স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন।

সব ধরনের ক্রিকেট মিলিয়ে গত দুই বছরে নয়বার অধিনায়ক বদলেছে শ্রীলঙ্কা। সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়ার কাছে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হেরে অধিনায়কের পদ থেকে ছাঁটাই হয়েছেন দিনেশ চান্ডিমাল। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে হার এখন তাদের নিত্যসঙ্গী। ১৯৯৬ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ও ২০০৭, ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট লঙ্কানরা নামতে নামতে কোথায় ঠেকেছে, ওপরের তথ্যটা পড়লেই বুঝে যাওয়ার কথা। দলের এমন পতন দেখে কষ্ট পান অন্যতম সেরা স্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন, যে মুরালিদের কাঁধে চড়েই নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা সময়টা পার করেছে শ্রীলঙ্কা।

শ্রীলঙ্কান দলের অবস্থা দেখে শঙ্কিত মুরালি, ‘অবসর নেওয়ার পর বহুদিন ধরে আমি শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের কোনো কিছুর সঙ্গে যুক্ত নই। দেশের ক্রিকেটের এমন পতন আমাকে ব্যথিত করে। যে দল তিন-তিনটা বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছে, একবার করে ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জয় করেছে, সে দলের জন্য এটা বেশ চিন্তার বিষয়।’
দলের বর্তমান খেলোয়াড়দের আত্মনিবেদন নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন এই কিংবদন্তি, ‘আমরা যখন খেলতাম, টাকাপয়সা আমাদের কাছে মুখ্য বিষয় ছিল না। আমরা দেশের জন্য খেলতাম। রান করা আর উইকেট নেওয়া আমাদের কাছে নেশার মতো ছিল। কিন্তু এখনকার খেলোয়াড়দের কাছে টাকাপয়সা আর খ্যাতি মুখ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। খেলোয়াড়েরা যখনই টাকার জন্য খেলা শুরু করবে, খেলার মান তত বেশি কমতে থাকবে। এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আপনাকে এ কথাটা মনে রাখতে হবে আপনি যদি ভালো খেলেন, টাকা আর খ্যাতি এমনিতেই চলে আসবে, আপনাকে আলাদা করে তখন সেগুলো নিয়ে চিন্তা করা লাগবে না।’

মুরালির এই আকুতি কি চান্দিমাল, করুণারত্নে, শানাকারা শুনতে পান?

Aviation News