লন্ডন এয়ারপোর্টে ‘অ্যান্টি ড্রোন’ ব্যবস্থা

এই লেখাটি 66 বার পঠিত
drone

২০১৮ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে ড্রোনের কারণে বন্ধ হয়ে যায় যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্যাটউইক এয়ারপোর্ট। ব্রিটিশ সেনাবাহিনী ইসরায়েলের তৈরি ড্রোন নিরাপত্তা ব্যবস্থা আনায় তিন দিন পর আবার এই এয়ারপোর্টে ফ্লাইট চালু হয়।

ড্রোনের কারণে ফ্লাইট বিলম্বের ঘটনা এবারই প্রথম নয়।

ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা এড়াতে এবার নিজস্ব অ্যান্টি ড্রোন নিরাপত্তা ব্যবস্থায় বিনিয়োগ করেছে গ্যাটউইক ও হিথরো এয়ারপোর্ট–খবর প্রযুক্তি সাইট ভার্জের।

এয়ারপোর্ট দু’টির পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, নিজস্ব “মিলিটারি গ্রেড অ্যান্টি-ড্রোন ব্যবস্থা” কিনতে ও সেগুলো বসাতে লাখো ডলার খরচ করেছে তারা।

গ্যাটউইক এয়ারপোর্টে ড্রোন ওড়ানোর ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে দ্রুতই তাদেরকে মুক্ত করা হয়। এ ঘটনায় আরও তদন্ত করছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

নতুন এই ব্যবস্থা নিয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য দেওয়া হয়নি। তবে বলা হয়েছে, ডিসেম্বরে সেনাবাহিনী যে ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে নতুন ব্যবস্থায়ও একই ধরনের নিরাপত্তা থাকবে।

এয়ারপোর্টের জন্য এই অ্যান্টি ড্রোন ব্যবস্থা বানিয়েছে ইসরায়েলের নিরাপত্তাবিষয়ক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রাফায়েল। ড্রোনের রেডিও সিগনাল ব্লক করে প্লেনকে নিরাপদে নামাতে সহায়তা করে এই প্রযুক্তি।

Aviation News