কেন বারবার ব্যর্থ হন, বুঝছেন বিরাট কোহলি

এই লেখাটি 48 বার পঠিত
vi

কেন বারবার ব্যর্থ হন, বুঝছেন বিরাট কোহলি।

সাফল্য কী সহজ! সাফল্য কী কঠিন! এই দুই অনুভূতির সঙ্গেই পরিচয় হয়ে গেছে বিরাট কোহলির। কত অনায়াসে একের পর এক সাফল্যচূড়ায় পা রেখেছেন। ব্যাটে রান কিংবা সেঞ্চুরি ব্যাপারটিকে মামুলি বানিয়ে ফেলেছেন। শুধু ভারত কেন, এশিয়ার অনেক অধিনায়ক করে দেখাতে পারেনি, এমন অনেক অর্জন আছে কাপ্তান কোহলির নামের পাশে। অথচ সেই কোহলি একটি ধাঁধা কিছুতেই মেলাতে পারেন না। আইপিএলে কাজ করে না তাঁর জাদু।

আইপিএলে এখন পর্যন্ত পাঁচটি শহর চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। কিন্তু একবারও শিকে ছেঁড়েনি নিয়মিত অংশ নেওয়া তিনটি শহরের—বেঙ্গালুরু, দিল্লি ও পাঞ্জাবের। বেঙ্গালুরুর আইপিএল শিরোপা জিততে না-পারার ব্যর্থতা বেশি করে চোখে পড়ে। কোহলির নেতৃত্বে বেঙ্গালুরু সব সময়ই সেরা দলগুলোর একটি বানায়। আইপিএলে সবচেয়ে বেশি খরুচে দলগুলোর একটি। কিন্তু এখন পর্যন্ত শিরোপা ওঠেনি ঘরে।

প্রত্যেকবারই যে কোহলির দল লাড্ডু খেয়েছে, এমন নয়। তিন-তিনবার ফাইনালে উঠেছিল বেঙ্গালুরু। এর দুবার কোহলি অধিনায়ক থাকার আগে।

সবচেয়ে বেশিবার ফাইনালে উঠে একবারও শিরোপা না জেতা দল বেঙ্গালুরু। খেলাটা টি-টোয়েন্টি, আর টুর্নামেন্টটা আইপিএল। এখানে ছোটখাটো অনেক সিদ্ধান্ত বড় প্রভাব ফেলে অনেক সময়। কোহলি মনে করেন, এই সিদ্ধান্ত নিতে গিয়ে ভুল করাতেই বেঙ্গালুরু বারবার খেসারত দিচ্ছে, ‘ভুল সিদ্ধান্ত নিতে থাকলে আপনি হারবেন। বড় ম্যাচগুলোতে আমরা ঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারিনি। যে দলগুলোর সিদ্ধান্ত নেওয়া ভারসাম্যপূর্ণ হয়, আইপিএলে তারাই জেতে।’

২০১৩ সাল থেকে র‍য়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এত দিনে সমর্থকদেরও তো প্রত্যাশার প্রতিদান দেওয়ার দায় তৈরি হয়েছে কোহলির ওপর। কোহলি সেটা মানছেনও, ‘এতগুলো বছর ধরে খেলছি, তিনবার ফাইনালে উঠেছি, তিনবার সেমিফাইনালে (চ্যাম্পিয়নস লিগসহ), তবু হাতে শিরোপা ওঠেনি। তারপরও কোনোবারই মনে হয়নি নতুন মৌসুম শুরুর আগে সমর্থকদের উদ্দীপনা এতটুকু কম। এটাই আমাকে সবচেয়ে বেশি উজ্জীবিত করে। এটা তখনই হয়, যদি আপনার খুব ভালো একটা সমর্থক গোষ্ঠী থাকে।’

২৩ মার্চ শুরু হচ্ছে এবারের আইপিএল। আইপিএলের গত দুই আসর একদমই ভালো যায়নি দলটির। সেই হতাশা মুছে ফেলতে এবার কোহলির নেতৃত্বে বেঙ্গালুরু প্রথম শিরোপা জেতে কি না, সেটাই দেখার।

Aviation News